নাসিরনগরে পাহারা দিয়েও চুরি প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না: এলাকাবাসী উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে

আকতার হোসেন ভুইয়া, নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকেঃ—
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলা সদরে চোরের উপদ্রব থেকে রক্ষা পেতে রাত জেগে এলাকাবাসী পাহারা দিয়েও চুরি প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না। বৃহস্পতিবার রাতে সদরের মধ্যপাড়ায় পাহারা দেয়া সত্বেও হাসপাতালের পাশে ফুলকিশোর সরকারের ঘরের দরজা ভেঙে চোররা ৫টি গরু নিয়ে পালিয়ে যায়। এসময় বাড়ির লোকজন টের পেয়ে চিৎকার শুরু করলে পার্শ্ববর্তী লোকজনসহ পাহারাদাররা এগিয়ে আসলে চোররা খোলা মাঠে ৪টি গরু ফেলে একটি গরু নিয়ে যায়্। যার মূল্য প্রায় ৪৫ হাজার টাকা। তাছাড়া এ পাড়ায় গত ১০ র্ফেরুয়ারি পাহারারত অবস্থায় পাহারাদার ইসহাক মিয়াকে একা পেয়ে চোররা মারধোর করে আহত করে। চারদিকে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে বেষ্ঠিত এ পাড়ায় ঘন ঘন চুরি ঘটনায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে মহল্লাবাসী। অথচ চোরের হাত থেকে রক্ষা পেতে এ পাড়ায় বসবাসকারী নাসিরনগর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রফিজ মিয়া, ৮নং ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক চৌধুরী,প্রেসক্লাব সভাপতি আজিজুর রহমান চৌধুরীসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত চাকুরীজীবী,মহল্লাবাসী রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে। নাসিরনগর সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রফিজ মিয়া ও ৮নং ইউপি সদস্য মোজাম্মেল হক চৌধুরী জানান,চুরি প্রতিরোধে সদরের এ ওর্য়াডে প্রতিরাতে ৭ জনের টিম রাত ১১ টার পর থেকে ভোর পর্যন্ত দীর্ঘদিন ধরে পাহারা দিয়ে আসছে মহল্লাবাসী। এ পাড়ায় চুরি ঘটনায় নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুল কাদের উপস্থিতিতে আইন-শৃংখলা উন্নয়নে একাধিকবার সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। তারপরও চুরি সংগঠিত হচ্ছে। যেন দেখার কেউ নেই এমন প্রশ্ন এলাকাবাসীর।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply