এসএসসি পরীক্ষায় মতলবে শিক্ষাবোর্ডের নির্দেশ উপেক্ষিত:: নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানেই পরীক্ষা দিচ্ছে অনেক পরীক্ষার্থীরা

শামসুজ্জামান ডলারঃ—
চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার এসএসসি’র ৬টি পরীক্ষা কেন্দ্র শিক্ষাবোর্ডের নির্দেশনা উপেক্ষা করে বেশ কিছু শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দেয়াচ্ছেন কেন্দ্র স্কুলের নিজ নিজ স্কুল বা কেন্দ্র ভ্যানুতেই। মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা পরিচালনা সংক্রান্ত নীতিমালা ৪-এর চ’তে বলা আছে কেন্দ্রের নিজস্ব স্কুলের পরীক্ষার্থীদেরকে অন্য ভ্যানুতে পরীক্ষার আসনের ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। কিন্তু এমনটা বিধিতে থাকলেও এ উপজেলার এসএসসি’র কেন্দ্রগুলো তা মানছে না। এখানকার এসএসসি’র ৬টি কেন্দ্রেই কিছু না কিছু পরীক্ষার্থী রয়েছে যারা পরীক্ষা দিচ্ছে নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই। তবে, মতলব-১১ সুজাতপুর নেছারিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে চিত্রটা সম্পূর্নই ভিন্ন। এখানে একই ক্যাম্পাসে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকা সত্বেও স্বাগতিক স্কুলের পরীক্ষার্থীরা সবাই পরীক্ষা দিচ্ছে নিজ বিদ্যালয়ের ভবনেই।

উপজেলায় এসএসসি’র বাকী কেন্দ্রের মধ্যে মতলব-২ ছেংগারচর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের কিছু পরীক্ষার্থী একই ক্যাম্পাসের প্রাথমিক বিদ্যালয় ভ্যানুতে পরীক্ষা দিলেও অনেক পরীক্ষার্থী আবার পরীক্ষা দিচ্ছে নিজ বিদ্যালয় ভবনেই। মতলব-.৩ নামক বদরপুর আকবর আলী খান উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভ্যানুটি নকল করতে না দেয়ায় শিক্ষককে মেরে পা ভেঙ্গে দেবার পর বিভিন্ন আন্দোলনের প্রেক্ষিতে প্রশাসন সেই কেন্দ্রের ভ্যানু হিসাবে গত ১২ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার ইংরেজী প্রথম পত্র পরীক্ষা থেকে নিকটস্থ বাগানবাড়ী আইডিয়াল একাডেমীতে পরীক্ষা নেয়া শুরু করেন কিন্তু সেই ভ্যানুতেও একই সমস্য। স্বাগতিক স্কুলের কিছু পরীক্ষার্থী একই ক্যাম্পাসের একটি কিন্ডার গার্ডেনের ভবনে পরীক্ষা দিলেও অনেকে পরীক্ষা দিচ্ছে নিজ স্কুলের ভবনেই। মতলব-৯ দশানী-মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র ক্যাম্পাসের ভিতরে বর্তমানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোন ভবন না থাকার কারনে স্বাগতিক স্কুলের সকল পরীক্ষার্থীই নিজ স্কুলে বসেই পরীক্ষা দিয়ে আসছে। এ ছাড়াও মতলব-৫ নাউরী আহমাদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র ও মতলব-৬ জমিলা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রেও নিজ স্কুলের কিছু পরীক্ষার্থী নিজ স্কুলে বসেই পরীক্ষা দিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু উপজেলার পরীক্ষাকেন্দ্রগুলোতে প্রশাসনিক নজরদারী থাকলেও এ ব্যাপারে নেই কোন প্রতিকার।

কেন্দ্র বিদ্যালয়ের নিজ স্কুলের কিছু পরীক্ষার্থী নিজ বিদ্যালয়ে বসেই পরীক্ষা দিচ্ছে এমন অভিযোগের ব্যপারে মতলব-৩ বদরপুর আকবর আলী খান নামক বাগানবাড়ী আইডিয়াল পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব ও উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার কাজী ওয়াহিদ মোঃ সালেহ, মতলব-৬ জমিলাখাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব মোহন মিয়া ও নাউরী আহমাদিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব তাজুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।
আর মতলব-১১ সুজাতপুর নেছারিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র সচিব শাহজালাল তার স্কুলের সকল পরীক্ষার্থীরা নিজ স্কুলেই পরীক্ষা দিচ্ছে এমন অভিযোগেরও সত্যতা স্বীকার করেন।

কুমিল্লায় একটি বিশেষ সভায় উপস্থিত থাকার কারনে এ ব্যাপারে মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন এর বক্তব্য নেয়া যায়নি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply