ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে চারদিনেও উদ্ধার হয়নি অপহৃতা মাদ্রাসাছাত্রী শান্তা

sarail pic 12-2-13ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ—
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দরিদ্র পরিবারের এক কিশোরী অপহরণের চারদিনেও উদ্ধার হয়নি মাদ্রাসাছাত্রী কিশোরী শান্তা আক্তার। এ ঘটনায় অপহৃতা কিশোরীর পিতা দিনমজুর গোলাম উল্লাহ থানা পুলিশের কাছে একাধিকবার ধর্ণা দিয়েও মেয়ের হদিস না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।
অভিযোগ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের টিঘর গ্রামের দরিদ্র গোলাম উল্লাহ’র কিশোরী মেয়ে শান্তা আক্তার (১৩) স্থানীয় দাখিল মাদ্রাসার তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী। মাদ্রাসায় যাতায়াতকালে একই গ্রামের প্রভাবশালী শাহার আলীর বখাটে পুত্র সোহাগ মিয়া তাকে প্রায়শই উত্যক্ত করতো। কিশোরীর পিতা বিষয়টি বখাটের পরিবারের লোকদের জানালে তারা উল্টো গালমন্দ করে। সম্প্রতি তারা বখাটে সোহাগের সাথে কিশোরীকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। শান্তার পরিবার এ প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় ক্ষিপ্ত হয়ে গত ৭ ফেব্রুয়ারি সকালে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে বখাটে সোহাগের নেতৃত্বে অন্যরা শান্তাকে অপহরণ করে সিএনজিযোগে নিয়ে যায়।
গোলাম উল্লাহ জানান, ‘আমার মেয়ে অপহরণের পরদিন থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। পুলিশ বিষয়টি তদন্তে যাবে যাবে বলে আমাকে ঘুরাইতেছে। একজন আইনের লোক মামলা করতে ১০ হাজার টাকা লাগবে বলে জানায়। তাকে দেড় হাজার টাকা দিয়েছি। বাকি টাকা চড়া সুদে আনার চেষ্টা করেও পাচ্ছি না। এখন টাকা দিয়ে পুলিশ এনে মেয়েকে উদ্ধার করা আমার দ্বারা সম্ভব হবে না।’ এদিকে এ ঘটনায় অভিযোগ দায়েরের চারদিন পর মাদ্রাসাছাত্রী শান্তা অপহরণ বিষয়ে সরাইল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) খন্দকার ফুয়াদ রোহানী প্রথমে সাংবাদিকদের জানান, ‘কোন মেয়েটি অপহরণ হয়েছে তা মনে করতে পারছি না।’ বিস্তারিত খুলে বললে তিনি জানান, ‘দারোগা মনির টিঘর গ্রামে গিয়েছেন। তিনি আসার পর কথা বলে ব্যবস্থা নিব।’

Check Also

আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট : বাঙালির অশ্রু ঝরার দিন

  কুমিল্লাওয়েব ডেস্ক:– আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট। জাতীয় শোক দিবস। বাঙালির অশ্রু ঝরার দিন। ১৯৭৫ ...

Leave a Reply