তিতাসে পুলিশ পাহারায় গভীর রাতে মিজানের লাশ দাফন

নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস (কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ—
জামায়াতের ডাকা গত বৃহস্পতিবারের দেশব্যাপী হরতালে বগুড়ায় ছাত্রলীগ ও ছাত্রশিবিরের মধ্যে সংঘর্ষের সময় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হ্যাচারী ব্যবসায়ী তিতাস উপজেলার উত্তর মানিকনগরের আবু কালাম সরকারের পুত্র মিজানুর রহমান মিজান (৩০) এর লাশ পুলিশ পাহারায় শুক্রবার রাতেই দাফন করা হয়।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লার তিতাস উপজেলার কলাকান্দি ইউনিয়নের উত্তর মানিকনগর গ্রামের আবু কালাম সরকারের একমাত্র পুত্র সন্তান মিজানুর রহমান মিজানের লাশ শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় নিজ বাড়ী মানিকনগরে পৌছলে নিহতের পিতা আবুল কালাম সরকার, মাতা রেজিয়া বেগম ও উপস্থিত আত্মীয় স্বজন কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এসময় নিহতের বাড়ীতে তিতাস থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এএসএম নুরুল আলম তালুকদারের নেতৃত্বে তিতাস থানা পুলিশ এবং কুমিল্লা থেকে আসা স্পেশাল টিম উপস্থিত ছিল। পরে তাৎক্ষণিক আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শেষ করে তার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানায়, কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম, লাকসাম, দেবিদ্বার ও মুরাদনগর থেকে আসা জামায়াতের নেতৃবৃন্দ কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকায় জানাজায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি।
গত বৃহস্পতিবার হরতাল চলাকালে সাবগ্রাম এলাকার দ্বিতীয় পাইপাসে পিকেটিংয়ের সময় ছাত্রলীগ ও শিবির কর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলে। ঘটনার সময় মিজান বিদ্যুৎ বিল দেয়ার জন্য যাচ্ছিল। এসময় কয়েকজন যুবক তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। পরে মিজানকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply