ব্রাহ্মণপাড়ায় ২ বাড়ী পুড়ার হোতা কূখ্যাত বিল্লাল ডাকাত গ্রেফতার

মিজানুর রহমান সরকার, ব্রা‏হ্মণপাড়াঃ—-
কুমিল্লার ব্রা‏হ্মণপাড়ার সাহেবাবাদ ছাতিয়ানী এলাকায় গত ২৭ জানুয়ারী রাতে ২ বাড়ীর ৪টি ঘরে অগ্নি সংযোগ করে পুড়িয়ে দেয়ার মূল আসামী এবং ডাকাতি সহ নারী নির্যাতকারী হিসেবে কয়েকটি মামলায় অভিযুক্ত বেশ কয়েকবার কারাবন্ধি হওয়া কূখ্যাত বিল্লাল ডাকাতকে ২৯ জানুয়ারী বিকেলে নিজ গ্রাম ছাতিয়ানী থেকে গ্রেফতার করেছে ব্রা‏হ্মণপাড়া থানা পুলিশ ।
এই ব্যাপারে তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই লুৎফর রহমান সাংবাদিকদের জানান, গ্রেফতারকৃত বিল্লাল ডাকাতের বিরুদ্ধে ৩০ অক্টোবর ২০১১ তারিখে বুড়িচং থানায় ডাকাতিকালে হাতে নাতে ধরা খাওয়া মামলা রয়েছে। ব্রা‏হ্মণপাড়া থানায় তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি নারী নির্যাতন সহ বাড়ী পুড়ার মামলা রয়েছে। সে এলাকাতে কূখ্যাত বিল্লাল ডাকাত ও নারী নির্যাতনকারী বিল্লাল হিসেবে কূখ্যাতী রয়েছে। তার নাম শুনলে এলাকায় মহিলারা শিহরে উঠে। তার ভয়ে এলাকাতে নিরীহ সহজ সড়ল লোকেরা মূখ খুলতে সাহস পায়না। সে একাধিকবার বিভিন্ন অপরাধে গ্রেফতার হয়ে জেল হাজতে ছিল। তার গ্রেফতারে এলাকাবাসী স্বস্থির নিঃস্বাশ ফেলে। উল্লেখ্য যে, অতি সম্প্রতি ২৭ জানুয়ারী রাতে একই গ্রামের মজিবুর রহমানের বশত ঘর সহ ২টি ঘর এবং মুসলেম মিয়ার বশত ঘর সহ ২টি ঘরে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়। এতে উভয় পরিবারের প্রায় ৬ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানায়। এছাড়াও সে একই গ্রামের মজিবুর রহমানের স্ত্রী খোরশেদা বেগম এবং তার মাকে বিভিন্ন সময় মারধর, নির্যাতন করায় তার বিরুদ্ধে খোরশেদা বাদী হয়ে ২০০৯ সালে ব্রা‏হ্মণপাড়া থানায় নারী নির্যাতন আইনে মামলা করে। ওই মামলাতেও সে গ্রেফতার হয়ে দীর্ঘ কয়েকমাস কারাগারে ছিল। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে এলাকায় বহু কূকর্মের অভিযোগ রয়েছে। যা সাধারণ মানুষ তার ভয়ে থানায় অভিযোগ করার সাহস পায়না। বারংবার বিভিন্ন অপরাধে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পরও শাস্তি না হয়ে কিছুদিন পর ফিরে এসে আরও কূকর্মের সাথে জড়িত হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এলাকাবাসী।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply