নারী নির্যাতন মামলা তুলে না নেওয়ায় সরাইলে যুবলীগ ক্যাডারের নেতৃত্বে বাদীর বসতঘর ভেঙে মালামাল লুট করে নিয়েছে সন্ত্রাসীরা

আরিফুল ইসলাম সুমন, সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া):—-
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থানায় নারী নির্যাতন আইনে দায়ের করা মামলা তুলে না নেওয়ায় এক যুবলীগ ক্যাডারের নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা বাদী শাহানা বেগমের বসতঘর ভেঙে মালামাল লুটে নিয়েছে।
গতকাল সোমবার উপজেলার কালীকচ্ছ ইউনিয়নের কলেজপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১৫ নবেম্বর কালীকচ্ছ কলেজপাড়ার মো. জামির মিয়ার স্ত্রী শাহানা বেগম ইউনিয়নের দক্ষিণ কালীকচ্ছ গ্রামের মৃত ময়দর আলীর ছেলে মো. হাবিব মিয়ার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেস্টার অভিযোগে সরাইল থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ এ মামলাটি আমলে নিলেও আসামি বীরদর্পে এলাকায় ঘুরাফেরা করে এবং মামলা তুলে নিতে বাদীকে নানাভাবে হুমকি দেয়।
গতকাল সোমবার দুপুরে কালীকচ্ছ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি প্রার্থী কালীকচ্ছ সূর্যকান্দি গ্রামের মৃত ফুল মিয়ার ছেলে মো. কামরুল মিয়া ও শাহানার দায়ের করা মামলার একমাত্র আসামী হাবিব মিয়ার নেতৃত্বে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে শাহানার বসতঘর ভেঙে এর মালামাল লুটে নিয়ে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা বাড়ির নারী-পুরুষদের মারধোর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।
শাহানা বেগম জানিয়েছে, এলাকার চিহ্নিত ভূমি সন্ত্রাসী ও নারী লিপসু হাবিব আমাকে ধর্ষণের চেস্টা করেছিল। এ ঘটনায় থানায় মামলা দিলেও পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার করেনি। হাবিবের পক্ষ নিয়ে সন্ত্রাসী কামরুল মামলা তুলে নিতে আমাকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। তারা দিনদুপুরে আমার একমাত্র বসতঘর ভেঙে দিয়েছে এবং ঘরের মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।
সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম কুমার চক্রবর্তী এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছিলাম। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply