সরাইলে দরিদ্র শীতার্ত মানুষের জন্য সরকারি অর্থে নিম্নমানের কম্বল ক্রয়ের অভিযোগ

আরিফুল ইসলাম সুমন, সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকেঃ—-
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় বরাদ্দকৃত সরকারি অর্থে দরিদ্র শীতার্ত মানুষদের মাঝে বিতরণের জন্য যে কম্বল কেনা হয়েছে তা অত্যন্ত পাতলা ও নিম্নেমানের। এ কম্বল দিয়ে একজন লোকের শীত নিবারণ কোনভাবেই সম্ভব নয়। এ অভিযোগ খোদ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানসহ একাধিক ইউপি চেয়ারম্যানের।
রোববার উপজেলা মাসিক সমন্বয় সভায় এ বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, অতি-সম্প্রতি উপজেলায় দরিদ্র শীতার্ত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণের জন্য সরকারিভাবে নগদ ৯১ হাজার ৯০ টাকা বরাদ্দ আসে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ টাকা দিয়ে ৪শত ৬৪টি কম্বল ক্রয় করে তা বিতরণ করেন।
কালীকচ্ছ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. তকদীর হোসেন জানিয়েছেন, আমার ইউনিয়নে ৩০টি কম্বল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। কম্বলগুলো খুবই পাতলা ও নিন্মমানের। এ কম্বল কোন লোক শীত নিবারণের জন্য শরীরে দিলে মাঝ রাতে সেই লোকের ঘুম ভেঙ্গে যাবে। এ নিয়ে সমন্বয় সভায় কথা বলেছি’। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তিনজন ইউপি চেয়ারম্যান জানান, যে মানের কম্বল কেনা হয়েছে এর চেয়ে মোটা কাপড়ের জামা অনেক দরিদ্র মানুষ পড়ে থাকেন। শীতার্তদের কম্বল প্রসঙ্গে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্বে থাকা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ ও চুন্টা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. শাহজাহান মিয়া জানিয়েছেন, সরকারি বরাদ্দ আসা-কম্বল ক্রয় ও বিতরণ এসবের কিছুই ইউএনও আমাকে জানাননি। সবকিছু তিনিই করেছেন। মাসিক সমন্বয় সভায় এ নিয়ে চরম আপত্তি উঠলে তিনি (ইউএনও) আমাকে জানান উপজেলা পরিষদের জন্য ৫০টি কম্বল রাখা হয়েছে। আমি জানতে পেরেছি দরিদ্র মানুষের জন্য যে কম্বল কেনা হয়েছে তা পাতলা ও কম মূল্যের।
এ বিষয়ে সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আনিছুজ্জামান খান জানিয়েছেন, কম্বল ক্রয়ে ৯১ হাজার ৯০ টাকা (ভ্যাটসহ) বরাদ্দ পাওয়া যায়। ৪৬৪টি কম্বল কেনা হয়েছে। বিতরণও করা হয়ে গেছে। অভিযোগ প্রসঙ্গে ইউএনও জানিয়েছেন, এ বিষয়ে (কম্বল ক্রয় ও বিতরণ) পরিপত্রে উপজেলা পরিষদ এর কারোর সাথেই সমন্বয় করার কথা বলা নেই। তাছাড়া আমি সবার সাথে এতো সমন্বয় বজায় রাখা সম্ভব নয়।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply