তীব্র যানজটে নাকাল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক; যাত্রীদের চরম দুর্ভোগঃ জনগণের দুর্ভোগ সচক্ষে দেখতে সড়ক পথে যাচ্ছি—যোগাযোগ মন্ত্রী

মাসুমুর রহমান মাসুদ, চান্দিনা (কুমিল্লা) থেকেঃ—
তীব্র যানজটে গত তিন’দিন ধরে নাকাল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক। গত বৃহস্পতি, শুক্র ও শনিবার টানা তিনদিনের ওই যানজটে চরম দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। শনিবার যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরও যানজটের কবলে পড়েন। বেলা ২টা ৩০ মিনিটে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চান্দিনা উপজেলার পালকি সিনামা হল এলাকায় তিনি যানজট নিয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি বলেন, “ধৈর্যহীন ও বেপরোয়া গতিতে গাড়ী চালানোর কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। আমি বিমান যোগে চট্টগ্রাম যেতে পারতাম। কিন্তু জনগণের দুর্ভোগ সচক্ষে দেখতেই সড়ক পথে যাচ্ছি’’। এদিকে যোগাযোগ মন্ত্রীর আগমনের খবরে পুলিশ প্রশাসন এর তৎপরতায় গতকাল শনিবার বিকেলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।
হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, বৃহস্পতিবার রাতে যানবাহন চলাচল কিছুটা সচল হলেও গতকাল শুক্রবার (১১ জানুয়ারী) ভোর সাড়ে ৬টায় মহাসড়কের চান্দিনা উপজেলার ছয়ঘরিয়া নামক স্থানে একটি ট্রাক সড়কের উপর ছিটকে পড়লে কুমিল্লার দাউদকান্দি থেকে কুমিল্লার আলেখারচর পর্যন্ত ৫০ কি.মি সড়কে যানজট সৃষ্টি হয়। গতকাল শনিবার ভোরে বুড়িচং উপজেলার সৈয়দপুর নামক স্থানে দুটি যানবাহনের মুখোমুখী সংঘর্ষ হলে ফের যানজট দেখা দেয়। শনিবার বিকাল ৩টা পর্যন্ত যানজট ছিল। এতে মালবাহী ট্রাক, যাত্রীবাহী বাসসহ সহস্রাধিক গাড়ী মহাসড়কে আটকা পড়ে।
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে আটকাপড়া যাত্রীদের সাথে কথা বলে জানাগেছে, অবৈধ পার্কিং এবং চালকদের আগে আগে যাওয়ার প্রবণতার কারণে যানজট সৃষ্টি হয়েছে। যাত্রীরা অভিযোগ করেন, চালকদের বেপরোয়া গতিতে অভারটেকিং এর কারণে এক পাশ থেকে পুরো রাস্তা দখল করে গাড়ী রাখায় বিপরীত দিক থেকে যানবাহন চলাচল করতে পারে না। এর কারণে যানজট আরও প্রকট হয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply