মতলবে বাক-প্রতিবন্ধি শিশুকে গণধর্ষনের পর হত্যা :: ১ মাস পর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার ॥ আটক ১

শামসুজ্জামান ডলার, মতলব উত্তর ( চাঁদপুর ) থেকেঃ
চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার সাদুল্যাপুর ইউনিয়নের বদরপুরের বেলতলী ল্যাংটার মেলা বিশ্বরোড সংলগ্ন সাগর বাদশার পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে সাদিয়া আক্তার নামে (১০) বছরের এক বাক-প্রতিবন্ধি শিশুর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে মতলব উত্তর থানা পুলিশ সংবাদ পাওয়ার পর ঘটনাস্থল থেকে ওই অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনার সাথে সন্দেহজনকভাবে আবুল কাশেম (৩৫) নামে এক যুবককে রাতেই আটক করেছে থানা পুলিশ। উদ্ধারকৃত বাক-প্রতিবন্ধির ওই ধর্ষিতা নারায়নগঞ্জ জেলার রূপগঞ্জ থানার কড়াইডা গ্রামের ডিপ্টি মিয়ার মেয়ে।
মতলব উত্তর থানা পুলিশ ও এলাকাসূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার বদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চোখের চিকিৎসা চলার কারণে প্রত্যন্ত অঞ্চলের রোগীরা চিকিৎসা নিতে যাওয়া-আসার কালে দুর্গন্ধ পাওয়ার পর রোগীরা ওই সাগর বাদশার পরিত্যক্ত বাড়ির খোলা বাথরুমের ভিতর গলায় রশি দিয়ে পেচানো অর্ধগলিত লাশ দেখতে পায়। পরে বিষয়টি সন্ধ্যার পর থানায় সংবাদ দেওয়া হলে গত বৃহস্পতিবার রাতে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা বাক-প্রতিবন্ধি শিশু সাদিয়াকে কয়েকজন মিলে ধর্ষন করার পর শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা পর রশি দিয়ে চালের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখে।
নিহতের পিতা ডিপ্টি মিয়া জানান, বাক-প্রতিবন্ধি সাদিয়া তার সাথে ল্যাংটার মেলার মাজারে গত তিন মাস যাবৎ ওই এলাকায় অবস্থান করছিলেন। গত ২৫-৩০ দিন ধরে সে তার মেয়েকে খুজে পাচ্ছেন না। অনেক খোজা-খোজি করেও মেয়ের সন্ধান পাওয়া যায়নি, এখন মেয়ের লাশ খুজে পাই। তার ধারণা মেয়েকে ধর্ষন করে হত্যা করে ওই পরিত্যক্ত বাড়িতে ফেলে রাখা হয়। ময়না তদন্তের জন্য লাশ চাঁদপুরের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মোহাম্মদ এরফান জানান, বাক-প্রতিবন্ধি শিশু সাদিয়াকে কোন দুষ্ট প্রকৃতির লোকজন তাকে ধর্ষনের পর চিনতে পারায় বা পরবর্তিতে ইঙ্গিত করে বলে দিতে পারে এই কারণে হয়তবা তাকে হত্যা করে রশি দিয়ে পরিত্যক্ত বাড়িতে ফেলে রাখে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply