আশুগঞ্জ সার কারখানার কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া / ১৮ ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)——
আশুগঞ্জ সার কারখানার বিক্রয় শাখার অতিরিক্ত প্রধান ব্যবস্থাপক (বিক্রয়) আ হ ম হাবিবুর রহমানের বিরুদ্ধে ব্যাপক দূনীতির অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগ এই প্রথম নয়। তার ঘুষ ও দূনীতির কারনে চাকুরী থেকে ২বার তাকে বরখাস্তসহ অনেক শাস্তি দিয়েছে বিসিআইসি কতৃপর্ক্ষ। কিন্তু তার ঘুষ ও দূনীতি কোন ক্রমেই কমেনি। দূনীতির মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীরা তার বিরুদ্ধে আন্দোলন পর্যন্ত করেছেন। কিন্তু একের পর এক দূনীতির পরও দীর্ঘ ১৪ বছর যাবত বহাল তবিয়তে নিজ পদে আছেন তিনি। বেশ কয়েকবার বিসিআইসি কতৃর্পক্ষ তাকে কারখানা থেকে বদলী করলেও তিনি তদবীর করে কারখানায় থেকে যান। কারণ আশুগঞ্জ সার কারখানায় তিনি যে পরিমান দূনীতি করতে পারেন তা অন্য কোন কারখানায় গেলে করতে পারবেন না। এ কারখানা থেকে তিনি বদলী না হওয়ায় স্থানীয় শ্রমিক-কর্মচারীসহ সার ডিলারা মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। সর্বশেষ তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ লিখিত ভাবে সার ডিলাররা বিসিআইসির উর্ধ্বতন কতৃপর্ক্ষের কাছে জানিয়েছে এবং তার অপসারণ চেয়েছে তারা। অভিযোগ পত্রে ডিলাররা অভিযোগ করেন বছরে অন্তত লক্ষ লক্ষ টাকা ডিলারদের কাছ থেকে ঘুষ নিচ্ছেন তিনি। আর যদি কেউ হাবিবকে ঘুষ না দেন তাহলে ডিলারদের তিনি নানা ভাবে হয়রানী করেন। প্রতিদিন ঘুষ নিয়ে সকাল ও বিকেলে ডিলারদের পাটের বস্তা না দিয়ে টাকার বিনিময়ে প্লাষ্টিকের বস্তা দিচ্ছে। আর যারা টাকা দিচ্ছে না তাদের পাটের বস্তা দিচ্ছে। কারন পাটের বস্তায় সারের ওজন কম থাকে। প্লাষ্টিকের বস্তায় সারের পরিমান সঠিক থাকায় বেশি দামে বিক্রি করা যায়।
নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছিুক এক ডিলারের প্রতিনিধি জানান, হাবিব সাহেব টাকার বিনিময়ে ডিলারদের প্লাষ্টিকের বস্তা দিচ্ছে। আমরা চাই সবাই প্লাষ্টিকের বস্তা দেয়া হোক। তা না হলে অনেকের মধ্যে অসস্তোষ দেখা দিবে।
ব্রাক্ষবাড়িয়া সার সমিতির সাধারন সম্পাদক জালাল উদ্দিন জানান, সার ডিলারদের প্রতিনিধিরা প্রায়ই অভিযোগে করেন আ হ ম হাবিবুর রহমান টাকা নিয়ে পাটের বস্তা না দিয়ে প্লাষ্টিকের বস্তা দিচ্ছে। এদিকে এসব অভিযোগের বিষয়ে অতিরিক্ত প্রধান ব্যবস্থাপক (বিক্রয়) আ হ ম হাবিবুর রহমানের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply