বোর্ডের সিদ্ধান্ত উপেক্ষিত:: মতলবে শিক্ষাবোর্ডের চেয়ে অধিক ক্ষমতাশালী স্থানীয় উপজেলা শিক্ষক সমিতি

মতলব উত্তর / ৬ ডিসেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———
মাধ্যমিক যে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মৌলিক নিয়ম কাঠামোর ক্ষেত্রে শিক্ষাবোর্ডের নিয়ম অনুসরন করবে এমনটা স্বাভাবিক হলেও চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় যেনো তার ব্যাতিক্রম। এখানে শিক্ষাবোর্ডের চেয়েও অধিক ক্ষমতাশালী দেখাযাচ্ছে স্থানীয় উপজেলা শিক্ষক সমিতিকে। আগামী এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ফর্ম ফিলাপে কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ড কর্তৃক সাধারন ও বানিজ্য বিভাগের জন্য ৯০০-১০০০ টাকা এবং বিজ্ঞান বিভাগের জন্য ১০০০-১১০০ টাকা ফি নির্ধারন করা হয়। কিন্তু স্থানীয় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি বোর্ডের সিদ্ধান্তকে তোয়াক্কা না করে তারা নিজেরা বোর্ড নির্ধারিত টাকার ৩ গুন অধিক হারে ফি নির্ধারন করে লিখিত রেজুলেশন ও সমিতির সভাপতির স্বাক্ষরের মাধ্যমে উপজেলার ৩৭ টি স্কুলে পৌঁছেদিয়ে তাই কার্যকর করেছেন।
মতলব উত্তর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি’র সভাপতির স্বাক্ষরকৃত সিদ্ধান্তানুযায়ী এ উপজেলায় সাধারন ও বানিজ্য বিভাগের জন্য ২ হাজার ৯০০ টাকা এবং বিজ্ঞান বিভাগের জন্য ৩ হাজার টাকা ফি নির্ধারন করা হয়েছে। কুমিল্লা শিক্ষাবোর্ডের সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বোর্ড নির্ধারিত ফি’র ৩ গুন হারে ফি উত্তোলন করা হলেও অদ্যবধি স্থানীয় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতিকে কোন ধরনের কৌফিয়ত তলব না করার বিষয়টি স্থানীয় সচেতন মহলের নিকট প্রশ্নবিদ্ধ।
তাছাড়া, পরীক্ষার্থীরা টেষ্ট পরীক্ষার ফি’র সময় এবছরের ডিসেম্বার পর্যন্ত বেতন পরিশোধ করে থাকলেও তাদের জন্য বেতন বাবদ অতিরিক্ত হারে উত্তোলন করা হয়েছে ৬০০ টাকা এবং আগামী জানুয়ারী’র এক মাস কোচিং এর জন্য ফি উত্তোলন করা হয়েছে ৮০০ টাকা। যা শিক্ষা বোর্ড ও শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সিদ্ধান্তের পরিপন্থী।

এ ব্যাপারে সরকারী দল সমর্থিত কয়েকজন শিক্ষানুরাগীর সাথে কথাহলে তারা বলেন, উপজেলা শিক্ষক সমিতির এ ধরনের খামখেয়ালীপনার কারনেই সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে। আর সমিতির স্বাক্ষরিত লিখিত রেজুলেশনের কাগজে যা দেখলাম তা সত্যিই হতাশাজনক। পাশাপাশি গ্রামীন ও চরাঞ্চল সমৃদ্ধ এ উপজেলার দরিদ্র পরিবারের মানুষের জন্য বোর্ডে’র নির্ধারিত টাকার ৩ গুন নির্ধারন যা জুলুমের সামিল।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার কাজী ওয়াহিদ বলেন, এসএসসি পরীক্ষার্থীর ফরম ফিলাপে শিক্ষক সমিতির সভাপতি স্বাক্ষরিত অতিরিক্ত হারে টাকা উত্তোলনের ব্যপারে কোন রকম রেজুলেশন বা চিঠি থাকলেও কেউ কোন ধরনের লিখিত অভিযোগ না করলেতো আমার কিছু করার নেই।

শামসুজ্জামান ডলার
মতলব উত্তর(চাঁদপুর)

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply