ইউএনও অনুমতি দিলেও জেলা প্রশাসকের নির্দেশে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল সরাইলের রুনা

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) / ৩০ নভেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———
শুক্রবার বাল্য বিয়ের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের আলহাজ্ব নুরুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী রুনা। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে দুপুরে দূর্বার নারী নেটওয়ার্ক নামে একটি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সেখানে উপস্থিত হয়ে রুনার পিতার কাছ থেকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে দিবেন না বলে মুছলেখা নেন।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রুনা আক্তার উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আখিঁতারা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল বাছিরের মেয়ে এবং আলহাজ্ব নুরুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী। বিদ্যালয়ের রেজিষ্টার অনুযায়ী তার বর্তমান বয়স ১৪ বছর ১০ মাস ৯ দিন। একই গ্রামের হামদু মিয়ার ছেলে মালয়েশিয়া প্রবাসী মো. রোকেল মিয়া (৩৩) সাথে তার বিয়ের দিনক্ষণ ধার্য্য করে পরিবার। বিয়ে উপলক্ষে বিশাল আয়োজনে দাওয়াত দেওয়া হয় স্থানীয় মহাজোট সংসদ সদস্য জিয়াউল হক মৃধা সহ উপজেলার গন্যমান্য লোকদের।
এদিকে সাংবাদিকরা এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিতে শুরু করলে মঙ্গলবার তরিগড়ি করে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ থেকে জন্মনিবন্ধন সনদ নেন রুনার পিতা। সেখানে তাকে প্রাপ্ত বয়স্ক হিসেবে দেখানো হয়। নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অনুমতিতে বাল্য বিয়ের বিশাল আয়োজন সরাইলে তোলপাড় শুরু হয়। এ নিয়ে বিভিন্ন দৈনিকে শুক্রবার সংবাদ প্রকাশিত হয়।
রুনার পিতা বাছির মিয়া বলেন, ইউএনও স্যার প্রথমে অনুমতি দিলেও পরে বিয়ে দিতে নিষেধ করেন। তাছাড়া এই বিয়ে নিয়ে চারদিক থেকে বাঁধা। সেইজন্য আর বিয়ে দেই নাই।
দূর্বার নারী নেটওয়ার্কের কুমিল্লা অঞ্চলের সাধারণ সম্পাদক সাহানা খায়ের জানান, এ বিষয়ে পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে তাদের সংগঠনের তিন সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল রুনার বাড়িতে উপস্থিত হয়ে তার পিতার কাছ থেকে মুছলেখা আদায় করেন।
এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আনিসুজ্জামান খান বলেন, ‘আমি কাউকে বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেইনি। তবে শুনেছি শেষ পর্যন্ত বিয়েটি হয়নি।’ তিনি বলেন, স্কুল রেজিষ্টারে জন্ম তারিখ যা-ই থাকুক না কেন, ইউনিয়ন পরিষদ জন্ম নিবন্ধন সনদে রুনা প্রাপ্ত বয়স্ক দেখেই এ বিয়ে চলবে বলে মেয়েটির পিতাকে বলেছিলাম।

আরিফুল ইসলাম সুমন

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply