প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল ৭ম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্রী রোকশানা

দেবিদ্বার / ২৫ নভেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———
প্রশাসনের হস্তক্ষেপে কুমিল্লার জেলার দেবিদ্বার ধামতী হাবিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেনীর মেধামী ছাত্রী রোকশানা (১২) বাল্য বিয়ের হাত থেকে। দৃষ্টান্ত ফাউন্ডেশন দেবিদ্বার, কুমিল্লার সভাপতি মোঃ সাইফ উদ্দিন (রনী) আবেদনের প্রেক্ষিতে রোববার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ হারুন অর রশিদ ও থানা অফিসার ইনচার্জ এস এম বদিউজ্জামানের এর নির্দেশে এ.এস.আই কবির হোসেন রোকসানার পিতা উপজেলার ধামতী গ্রামের আসাদের বাড়ীর রুহুল আমিনের বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে তার কন্যা রোকশানার বিয়ে বন্ধের আদেশ দিলে রুহুল আমিন বাল্য বিয়ে বন্ধে সম্মত হন।
রোকশানার পারিবারিক সুত্র ও বিদ্যারয়ের প্রধান শিক্ষক মো:আবুল কালাম এর সাথে কথা বলে জানা যায় ধামতী (আসাদের বাড়ি) গ্রমের রুহুল আমীন কন্যা রোকশানা (১২) ৭ম শ্রেনিতে পড়ে। সে মেধাবী ছাত্রী। তার অনিচ্ছায় তাকে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কুমিল্লা জেলার ব্রাক্ষনপাড়া উপজেলার চালনা গ্রামের প্রবাসী জয়নাল আবেদীন (৩০) এর সাথে সোমবার দুপুরে রোকসানার সাথে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।
দেবিদ্বার থানা অফিসার ইনচার্জ এস এম বদিউজ্জামান জানান, ৭ম শ্রেনীর ছাত্রীর বয়স কখনো ১৮ হতে পারে না। তাই জন্ম নিবন্ধনের ফটোকপি ১৮ বছর দেখানো হলেও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ হারুন অর রশিদ স্যারের সাথে আলাপ করে বাল্য বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দিয়েছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply