দাউদকান্দিতে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় জেএসসি পরীক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে গেছে বখাটেরা

দাউদকান্দি / ৫ নভেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———-
সোমবার দুপুরে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় দাউদকান্দিতে বখাটেরা এক জেএসসি পরীক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে গেছে।
দাউদকান্দি উপজেলার জুরানপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের জেএসসি পরীক্ষার্থী সানজিদা আক্তার (১৩) কে দশপাড়া গ্রামের তিতু মিয়ার পুত্র বখাটে আবদুল জলিল (২২) আরো ২-৩ জন বখাটের সহযোগিতায় বাংলা দ্বিতীয়পত্র পরীক্ষা শেষে কেন্দ্র থেকে বের হওয়ার পর তুলে নিয়ে যায়। মেয়েটির সঙ্গে থাকা খালাত ভাই মামুনকে মারধর করে জোরপূর্বক তাকে সিএনজিতে করে তুলে নিয়ে গেছে বখাটেরা।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, তাদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন জড়ো হলে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে বখাটের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করে বখাটে আবদুল জলিলের গ্রামের বাড়ি দশপাড়ায় অভিযান চালিয়ে তাকে না পেয়ে তার মাকে আটক করে দাউদকান্দি মডেল থানায় নিয়ে আসে।
এ ব্যাপারে স্থানীয় সুন্দলপুর মডেল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসলাম মিয়াজী বলেন, বখাটে আবদুল জলিল জুরানপুর বাজারে একটি স্টুডিও দোকানে ফটোগ্রাফার হিসেবে কাজ করত। সেই সুবাদে সে মেয়েটিকে প্রায়ই প্রেমের প্রস্তাব দিত। তাতে সে রাজি না হওয়ায় আজ বখাটে জলিল তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে গেছে। এ ব্যপারে দাউদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল ফয়সল জানান, পরীক্ষার্থীকে উদ্ধারের জন্য বিভিন্ন স্থানে পুলিশি অভিযান চালানো হচ্ছে এবং তাৎক্ষণিকভাবে বখাটের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে না পেয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার মাকে আটক করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে দাউদকান্দি উপজেলা ইভটিজিং প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক বিশিষ্ট কবি ও কলামিস্ট বলেন,‘ইভটিজিং আবারও মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। স্থানীয় প্রশাসন ও সচেতন মহল যদি ইভটিজিং-যৌনহয়রানীর প্রতিরোধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ না করেন তাহলে বড় ধরনের সামাজিক সমস্যা দেখা দেবে।’

শামীমা সুলতানা, দাউদকান্দি

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply