চান্দিনায় গরু ব্যবসায়ী জামালের বিরুদ্ধে ২৭ লাখ টাকা প্রাতারণার অভিযোগ

চান্দিনা / ৪ নভেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———-

চান্দিনা উপজেলার কুটুম্বপুর গ্রামের মৃত ফজলু মিয়ার ছেলে গরু ব্যবসায়ী মো. জামাল এর বিরুদ্ধে প্রতারণার মাধ্যমে ২৭ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। সাতক্ষীরা জেলার শিয়ালডাঙ্গা গ্রামের মৃত হেকমত আলী গাজীর ছেলে মো. কাউছার এর সাথে দীর্ঘ এক বছর যাবৎ অংশিদারিত্বের ভিত্তিতে সে গরু ব্যবসা করে আসছে।
ব্যবসায়ী মো. কাউছার অভিযোগ করেন, পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষ্যে এবছর চান্দিনা উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রাম থেকে গরু ক্রয়ের নামে ব্যবসায়ী জামাল তার কাছ থেকে ১০ লাখ ৫০ হাজার টাকা আনেন। পরে চট্টগ্রামে এক হাট থেকে অন্য হাটে গরু নিয়ে যাওয়ার কথা বলে প্রতারণা করে ট্রাক ভর্তি গরু নিয়ে পালিয়ে যান। বহু খোঁজাখুজির পর জানাযায় মো. জামাল তার শ্বশুর বাড়ী চান্দিনা উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামেই ওই গরুগুলো নিয়ে আসেন। প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে জামালের সাথে যোগাযোগ এর চেষ্টা করেও কোন সুরাহা করতে পারিনি। পরে চান্দিনা’র কতিপয় প্রভাবশালী ব্যবসায়ীদের সহায়তা নিয়ে একটি সালিশ হয়। সালিশে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ আমাকে টাকা ফিরিয়ে দিতে জামাল এর প্রতি নির্দেশ প্রদান করেন। পরবর্তীতে জামাল আমার পাওনা টাকা না দিয়ে অজ্ঞাত স্থানে আত্মগোপন করে।
তিনি আরও অভিযোগ করেন, আমি ব্যবসায়ী মো. জামাল এর কাছে ২৭ লাখ টাকা পাই। সে ব্যবসায় লোকসান দেখিয়েছে ৭ লাখ টাকা, বাজারে পাওনা দেখিয়েছে ৭ লাখ টাকা এছাড়া গরু ক্রয়ের জন্য নগদ টাকা নিয়েছে ১৩ লাখ টাকা।
গতকাল সোমবার (৫ নভেম্বর) সরেজমিনে মোহাম্মদপুর এলাকা ঘুরে দেখাগেছে, মো. জামাল এর শ্বশুর মো. সিরাজুল ইসলাম শেখ এর বাড়ীতে ৮টি গরু এবং একই গ্রামের মো. বাচ্চু মিয়া বেপারীর বাড়িতে রয়েছে ১১টি গরু রয়েছে। অপরদিকে ওই গ্রামের মৃত আকমত আলী শেখ এর ছেলে চাঁন মিয়া শেখ জানান, ব্যবসায়ী জামাল আমাদের কাছ থেকে বাকীতে ওই গরুগুলো কিনে নিয়েছিল।
এ ব্যাপারে ব্যবসায়ী মো. জামাল এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

মাসুমুর রহমান মাসুদ, চান্দিনা

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply