দেবিদ্বারে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে ১৮ দলের প্রার্থী হিসেবে জামায়াত নেতা শহীদের প্রচারনাঃ ক্ষুব্দ বিএনপি

দেবিদ্বার / ৩ নভেম্বর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———-
দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে কুমিল্লা-৪ (দেবিদ্বার) নির্বাচনী এলাকায় ১৮ দলের প্রার্থী হিসেবে পোষ্টার করে প্রচারনা চালাচ্ছে উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী মু. সাইফুল ইসলাম শহীদ। ওই প্রচারনায় ক্ষুব্দ বিএনপি সহ জোটের নেতা কর্মীরা।
জানা যায়, কুমিল্লায় জামায়েতের ঘাটি হিসেবে ধরা হয় চৌদ্দগ্রাম ও দেবিদ্বার উপজেলা কে । কিন্তু ৮ম ও ৯ম এ দুটি জাতীয় নির্বাচনে বিএনপিকে জামায়াত ছার দেওয়ায় আগামী ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামায়াত জোটের কাছে কুমিল্লা-৪ (দেবিদ্বার) আসনটি দাবী করবে বলে সূত্র জানায়। ওই কারনে কেন্দ্রীয় সংগঠনের নির্দেশনার আলোকে উপজেলা জামাতের সুরা ও কর্ম পরিষদের বৈঠকে জামায়াতের উপজেলা সেক্রেটারী মু. সাইফুল ইসলাম শহীদকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু সাইফুল ইসলাম শহীদ জামায়াতের প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা না চালিয়ে সংগঠনের শৃংখলা ভঙ্গ করে বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় প্রার্থী হিসেবে পোষ্টার করে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযেগের নেটওয়ার্ক ফেইজবুক সহ বিভিন্ন ভাবে প্রচারনা চালালে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন সহ জোটের নেতাকর্মীরা ক্ষুব্দ হয়। এদিকে জামায়াতের নেতা-কর্মীরাও হতাশ সাইফুল ইসলাম শহীদের এই কর্মকান্ডে। কারন তাকে জামায়াতের প্রার্থী হিসেবে পোষ্টার করে প্রচারনা চালানোর অনুমতি দেয়নাই সংগঠন, সেখানে ১৮দলের কোন প্রকার সিদ্ধান্ত ছাড়াই জামায়াত মনোনীত ১৮ দলের প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা চালাচ্ছে। তার এই কর্মকান্ডের কারনে দেবিদ্বার উপজেলায় জোটের মধ্যে ধিদা-দন্ধের সৃষ্টি হওয়া আশংক্ষা দেখা দিয়েছে এবং জোটের কাছে জামায়াতের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে।
এদিকে আরো জানা যায়, জামায়াতের অনেক রোকনদের বিরুধীতার মধ্যদিয়ে প্রতারনা করে তথাকথিত ভোটের মাধ্যমে আগামী জাতীয় নির্বাচনে সাইফুল ইসলাম শহীদকে মনোনয়ন করেন উপজেলা আমীর। ওই তথাকথিত ভোটের সময় উদ্দেশ্য মূলকভাবে উপজেলা জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আবদুস ছালাম কয়েকটি শর্ত আরোপ করেন, শর্তগুলো হলো যাকে প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য ভোট দেবেন তিনি জামায়াতের রোকন, শিবিরের সাথী সদস্য হতে হবে এবং সে স্থানীয়ও হতে হবে। তাই ভোটাররা উপজেলা সদরে সাইফুল ইসলাম শহীদকে ছাড়া আর কাউকে না পেয়ে বাধ্য হয়ে তাকে ভোট প্রদান করেন। নেতাকর্মীরা ক্ষুব্দ হওয়ার কারন হিসেবে জানান, অনেক দিন দরে আমরা জামায়াতের সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে শুনে আসছি গুনাইঘর ইউনিয়নের কৃতিসন্তান জামায়াতের যুক্তরাজ্য মুখ্যপ্রাত্র ব্যারিষ্টার আবু বকর সিদ্দিক মোল্লা, ইসলামী এইড বাংলাদেশের পরিচালক মোস্তফা হোসাইন সরকার ও রিলায়েন্স গ্রুপের এমডি,শিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা আবু সাঈদ মোঃ ফারুক এর নাম। কিন্তু দুই বছর আগে ওই সাইফুল ইসলাম শহীদকে দেবিদ্বার পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কমিশনার প্রার্থী হিসেবে সিদ্ধান্ত নিয়ে বিভিন্ন রকমের পোষ্টার, ফেষ্টুন, ব্যানার ও ষ্টিকার করে প্রচারনা চালায়। গত রমজান ঈদে পৌর এলাকার ৫নং ওয়ার্ড বাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ব্যাপক প্রচারনা চালায় সাইফুল ইসলাম শহীদ। ওই কয়েক দিনের ব্যবধানে সাইফুল ইসলাম শহীদকে পৌর কমিশনার প্রার্থী বাতিল করে ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী করার সিদ্ধান্তে নেওয়া হয়। অনেক যোগ্য লোককে বাদ দিয়ে তাকে প্রার্থী করায় নেতাকর্মীরা ক্ষুব্দ হয়ে উঠেন। ওই ভোটা ভোটিতে অংশ নেওয়া শিবিরের অনেক সাথী এখনও জাতীয় নির্বাচনে ভোটার না হয়েও প্রার্থী বাছাইয়ে ভোট প্রদান করায় বির্তকীত হয়ে পড়েন স্থানীয় জামায়াত নেতারা।
পৌর জামায়াতের আমীর মনিরুল আলম পাঠান জানান, দলীয় শৃংখলা ভঙ্গ করে সাইফুল ইসলাম শহীদ ১৮ দলীয় প্রার্থী হিসেবে প্রচারনা চালাচ্ছে। তাকে জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থীর ব্যাপারে ১৮দলীয় জোটের কোন সিদ্ধান্ত হয়নি, জামায়াতের প্রার্থী হসেবে তাকে মনোনীত করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আবদুস ছালাম বলেন, বলা হচ্ছে শহীদ ১৮ দলীয় প্রার্থী হিসেবে পোষ্টার করেছে, তবে সে করেছে কিনা তা ক্ষতিয়ে দেখা হচ্ছে। যদি করে থাকে তাহলে দলীয় ফোরামই তার ব্যাপারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
পৌর বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক সুলতান কবির আহম্মেদ ও উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক এডভোকেট ফরিদ উদ্দিন জানান, এ আসনটি বিএনপি নেতা ও চারচার বারের নির্বাচীত সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুরুল আহসান মুন্সীর আসন। কিন্তু বিএনপি’র নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের কোন প্রকার সিদ্ধান্ত ছাড়াই জামায়াত নেতা ১৮ দলের প্রার্থী হিসেবে পোষ্টার করে যে প্রচারনা চালাচ্ছে তার তীব্র নিদ্ধা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি আমরা। এটা উদ্দেশ্য মূলক ভাবে জোটে ভাংঙ্গন সৃষ্টির জন্যই করা হয়েছে। আমরা জামায়াতের দলীয় ফোরামের মাধ্যমে জামায়াত নেতা সাইফুল ইসলাম শহীদের শাস্তি দাবী করছি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply