দেবিদ্বারে স্বড়জন্ত্রমূলক মিথ্যা হত্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

দেবিদ্বার / ১৮ অক্টোবর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———-
দেবিদ্বারে স্বড়জন্ত্রমূলক মিথ্যা হত্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলার চরবাকর গ্রামের মোস্তফা মিয়া স্ত্রী রাহিমা বেগম।
বৃহস্পতিবার দেবিদ্বার প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে রাহিমা বেগম জানায়, গত ১৩ সেপ্টেম্বর (শনিবার) আমার দুই ছেলে সাজ্জাত (৭), সাহাদাত (৫) এবং আমার বাসুরের নাতী সিয়াম (৬) খেলাধুলার এক পর্যায় তাদের মধ্যে জগড়া হয়। আমি তাদের সকলকে সান্তনা দিয়ে ঘরে পাঠিয়ে দেই। ঘটনার কিছুক্ষন পর আমার বাসুর আবদুর রাজ্জাক (৭০) ঘর থেকে বের হয়ে আমাদেরকে উদ্দ্যেশ করে উচ্চস্বরে গালমন্দ করলে আমার বড় ছেলে দেবিদ্বার এস.এ কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র মোঃ সাজারুল ইসলাম তার জেঠাকে গালমন্দ না করতে অনুরোধ করে। সে বলে আপনি অসুস্থ মানুষ, পূর্বে আপনার দু’বার হার্টএটাক হয়েছে এভাবে উচ্চ স্বরে কথা বললে আপনার সমস্যা হতে পারে। আমার ছেলে তার জেঠার সাথে কথাবলে দুপুরের ভাত খাওয়ার জন্য ঘরে চলে আসে এবং সে ভাত থাওয়ার এক পর্যায় কান্না কাটির শব্দ শুনতে পেয়ে আমি ও আমার বড় ছেলে ঘর থেকে বাহির হয়ে বাসুর আবদুর রাজ্জাকের মৃত্যুর খবর শুনি। ওই মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে পুকুরে গোশল করা অবস্থায় আমার স্বামী মোস্তফা মিয়াকে বাড়িতে ডেকে আনি। আমার স্বামী বাড়িতে এসে তাহার বড় ভাইয়ের লাশের পাশে বসে কান্নাকাটি করে। এর প্রায় এক ঘন্টা পর দেবিদ্বার থানা পুলিশ বাড়িতে এসে আমার স্বামী মোস্তফাকে থানায় নিয়ে যায়। ওই দিন রাতে আমার স্বামী ও বড় ছেলেকে আসামী করে দেবিদ্বার থানায় স্বড়জন্ত্র মূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করে। মামলা হওয়ার পর থেকে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিরা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে মামলা শেষ করে দেবে, না হয় আমার বাড়ি ঘর অগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে। বর্তমানে আমরা স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যাক্তি ও পুলিশের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে বেড়াচ্ছি। প্রশাসনের কাছে আমার আকুল আবেদন সত্য ঘটনা উদঘাটন পূর্বক ন্যায় বিচার কামানা করছি।

(মোঃ আবু বকর সিদ্দিক)

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply