ঘরে বসে সুস্থ জীবন————কাজী কোহিনূর বেগম তিথি

দরিদ্র পীড়িত দেশগুলোর মধ্যে আমাদের দেশ অন্যতম। আমাদের দেশের মানুষের রোগ-শোক দৈনন্দিন জীবনের সাথী । অধিক অর্থ ব্যয় করে কোন ধরনের চিকিৎসা গ্রহন করা তাদের পক্ষে সম্ভন না।ফলে, বিনা চিকিৎসায় দীর্ঘদিন ভোগের পর তাদের মৃত্যু বরন করতে হয়।

বলা বাহুল্য,আমাদের দেশের বেশীরভাগ মা ও শিশুরা, সাধারনত অপুষ্টিতে ভুগে থাকে।আবার অনেক সময় দেখা যায় কিশোর-কিশোরিরা নেশাগ্রস্থ হয়ে পড়ছে-অভিভাবকরা চিন্তায় অস্থিরহয়ে যায় হতাশায় ভুগে থাকে।
আবার, অধিকাংশ মানুষকে-বার্ধক্যে পরিবারের বোঝা হয়ে ধুকে ধুকে মরতে হয় –হাটুর ব্যাথা,কোমর ব্যাথা এমন কি প্যারেলাইসড রোগী হয়ে ।

অজ্ঞতা আমাদের দেশের মানুষের শারীরিক মানসিক সূখ কেড়ে নিয়েছে-সুস্থ সুন্দর জীবন সবার কাম্য।অর্থ্যাৎ শরীর সুস্থ না থাকলে মন ভাল থাকে ণা আর মন ভাল না থাকলে আমাদের দৈনন্দিন জীবন সুন্দর হয়ে ওঠে না।কোন কাজ করতে ভাল লাগে না, কারো সাথে ভাল ব্যাবহার করা যায় না অর্থ্যাৎ পারিবারিক অশান্তি লেগে থাকে।এভাবে সমাজ কলুষিত হয়ে যায়।এর প্রভাব রাষ্ট্রের ওপর পড়ে।

যখন সারা র্পৃথিবীতে কোন ধরনের ঔষধ পাওয়া যেত না তখন মানুষ প্রাকৃতিক চিকিৎসার মাধ্যমে রোগ নির্নয় করে নিরাময় করত।আকুপ্রেসার চিকিৎসার মাধ্যমে রোগ নির্নয় এবং নিরাময় সম্ভব।অর্থ্যাৎ আমাদের শারীরিক ও মানসিক যে কোন অসুস্থতা দূর করতে যদি আমরা আকুপ্রেসার চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়মিত পরিচর্যা করি পাশাপাশি যোগ ব্যায়াম,আর পাশাপাশি শাক-সবজি,দেশী মৌসুমী ফল বিশেষ করে রংধনু খাবার নিয়মিত যদি খাই তা হলে আমরা যে কোন কঠিন রোগ থেকে মুক্ত থাকতে পারব।

সুস্থদেহ – প্রশান্তমন – কর্মব্যাস্ত -সুখী জীবন আমাদের সকলের কাম্য।এই পদ্ধতির প্রতি যত্নশীল হয়ে আমরা নিজে সুস্থ থাকার চেষ্টা করব, পরিবারের প্রত্যেককে সুস্থ রাখার চেষ্টা করব এবং এক সময় সমাজের প্রতি দায়িত্ব পালন করব, আমি আশা করি আমাদের দেশের প্রতিটা পরিবার এক সময় আকুপ্রেসার পরিবার হবে।

ওয়েব সাইটের ঠিকানা-www.accupresure/www.reflexology
অনুযায়ী আমরা যদি সার্চ করি তাহলে বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যাব আকুপ্রেসার সম্পর্কে।

তাই এই আকুপ্রেসার পদ্ধতি আমরা সবাই জানব এবং সবাইকে জানাব এই অঙ্গিকার নিয়ে পথ চল্লে একদিন আমাদের সমাজে এমনকি সারাদেশে সুস্থতার আলো জ্বেলে উঠবে আমার বিশ্বাস॥

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply