নৌপথে কেমিক্যাল নেওয়া হচ্ছেঃ ট্রানজিট পেতে আশুগঞ্জ বন্দরের উন্নয়ন কাজে ভারতের আগ্রহ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া/ ১২ অক্টোবর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———-কয়লা পরিবহনের পর এবার দেশের নৌপথ দিয়ে জাহাজে করে সিমেন্ট কোম্পানির কেমিক্যাল (ফ্লাইঅ্যাস) নেওয়া হচ্ছে ভারতে। আশুগঞ্জ নৌবন্দরে নোঙর করা এমভি বিবি ১১৩৫ জাহাজ থেকে ট্রান্সশিপমেন্ট শেষে প্রায় এক হাজার মেট্রিক টন কেমিক্যাল নিয়ে পূবালী ও মিতালী নামে ছোট দু’টি জাহাজ ভারতের আসাম রাজ্যের করিমগঞ্জ সীমান্তের উদ্দেশে গত বৃহস্পতিবার বন্দর ছেড়ে গেছে। দুই দেশের মধ্যে দু’বছরের জন্য নবায়নকৃত নৌ-প্রটোকল চুক্তির আওতায় চলতি বছরে দ্বিতীয় বারের মতো ভারতে এ মালামাল যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন আশুগঞ্জ নৌ-বন্দরের পরিবহন পরিদর্শক মো. শাহ আলাম। এ চুক্তির আওতায় সরকার প্রতি বছর ১০ কোটি টাকা রাজস্ব পাচ্ছে। তবে এসব মালামাল থেকে নতুন কোনো রাজস্ব পাচ্ছে না এ কথা জানিয়েছেন আশুগঞ্জ নৌবন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা মো. সুমন মিয়া। তিনি জানান, ইতিমধ্যে কয়লা নিয়ে তিনটি জাহাজ ভারতের উদ্দেশে আশুগঞ্জ বন্দর থেকে ছেড়ে যায়।
এদিকে ট্রানজিট পেতে আশুগঞ্জ নৌবন্দর কন্টেইনার টার্মিনাল নির্মাণ করতে ভারত আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এ বন্দরের অবকাঠামো নির্মাণে ব্যয়সহ সার্বিক বিষয় নির্ধারণের জন্য সম্ভাব্যতা যাচাই করার খরচ বহন করবে ভারত। শিগগিরই দেশটির পক্ষ থেকে সম্ভাব্যতা যাচাই করার জন্য দরপত্র আহবান করবে। এ কথা জানিয়েছেন বন্দর সংশ্লিষ্ট অনেকে। তারা আরো জানান, এ নৌবন্দর পরিদর্শনে ভারতীয় প্রতিনিধি দল ঘন ঘন আসছেন।
উল্লেখ্য যে, গত ৯ সেপ্টেম্বর এমভি বিবি ১১৩৫ জাহাজ এক হাজার মেট্রিক টন সিমেন্ট কেমিক্যাল (ফ্লাইঅ্যাস), ১৬ সেপ্টেম্বর এমভি গল্ফ ওরিয়েন্ট সিওয়েজের-৫ জাহাজ এক হাজার মেট্রিক টন কয়লা, এমভি গল্ফ ওরিয়েন্ট সিওয়েজের-৩ জাহাজ এক হাজার ২২৫ মেট্রিক টন কয়লা, ২২ সেপ্টেম্বর এমভি মা রহিমা খাতুন নামে একটি জাহাজ ৬০২ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে আশুগঞ্জ বন্দরে নোঙর করে। আসামের কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য কয়লা ও সিমেন্ট ফ্যাক্টরির কেমিক্যাল হিসেবে ফ্লাইঅ্যাস নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

(আরিফুল ইসলাম সুমন, স্টাফ রিপোর্টার ব্রাহ্মণবাড়িয়া)

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply