দেবিদ্বারে পূঁজা মন্ডবের মূর্তী ভাংচুর

দেবিদ্বার / ৩ অক্টোবর (কুমিল্লাওয়েব ডটকম)———-
দেবিদ্বার উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামের মৃত ললিত মোহন রায়’র বাড়ীর (শীলবাড়ী) দূর্গাপূঁজা মন্ডপের প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে আতঙ্ক ও ক্ষোভ বিরাজ করছে। ওই ঘটনায় মোহাম্মদপুর হিন্দু কল্যান পরিষদ সভাপতি নারায়ন চন্দ্র দে বাদী হয়ে সোমবার গভীর রাতে ঘটনায় দেবিদ্বার থানায় একটি লিখিত অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।
সংবাদ পেয়ে মঙ্গলবার বিকেলে ভাংচুর হওয়া পূঁজামন্ডব পরিদর্শনে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ, দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) এস.এম বদিউজ্জামান ও উপজেলা পূঁজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি নারায়ন চন্দ্র দেবনাথসহ বিশিষ্টজনেরা।
মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় ঘটনাস্থল থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুন-অর-রশিদ বলেন, পূঁজা মন্ডপের বেশকটি প্রতিমার হাত ভাংলেও দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন করা হয়নি, যা মেরামত করা সম্ভব। তবে এ কাজটি পরিকল্পিতভাবে কেউ করেনি বলে ধারনা করা হচ্ছে। দূর্গাপূঁজা আর মাত্র ১৯দিন বাকী। এসময়টা স্থানীয় প্রশাসনের পাশা পাশি ওই পূঁজা মন্ডবের সংশ্লিষ্ট ২১পরিবারের পক্ষ থেকে প্রহরার ব্যবস্থা করার অনুরোধ করেছি।
দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) এস.এম বদিউজ্জামান ঘটনাস্থল থেকে বলেন, পূঁজামন্ডপের কয়েকটি প্রতিমার হাত মুচড়ে দিয়েছে। তবে এ কাজটি উদ্দেশ্যমূলক ভাবে কেউ করেছে বলে মনে হয়নি। পূঁজামন্ডপের কোন নিরাপত্তা বেষ্টুনি ছিলনা। ওই রাতে পাশেই স্থানীয়রা হা-ডু-ডু খেলেছে। খেলা শেষে কোন দুষ্ট লোক যাওয়ার পথে এ ন্শকতামূলক কাজটি করে গেছে।
উপজেলা পূঁজা উদযাপন পরিষদ সভাপতি নারায়ন চন্দ্র দেবনাথ বলেন, আমরা হিন্দু-মুসলীম ভ্রাতৃপ্রতীম সম্পর্ক নিয়েই চলতে চাই। ঘটে যাওয়া ঘটনাটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এ ঘটনাটি উস্কে দিয়ে কেউ জাতে সাম্প্রদায়ীক সম্প্রিতী বিনষ্ট করতে না পারে সে ব্যপারে আমরা সতর্ক আছি।
আসন্ন দূর্গাপূজা উদযাপনের মাত্র ১৮ দিন পূর্বে প্রতিমা তৈরীকালে প্রতিমার বেশ কিছু অংশ ভাংচুর করেছে অজ্ঞাতনামা দৃর্বত্তরা। সোমবার গভীর রাতে উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামের (শীল বাড়ি) আয়োজিত আসন্ন দূর্গাপূজা উদযাপন উপলক্ষে প্রতিমা তৈরীকালীন পূজা মন্ডপে ঘটনাটি নিয়ে স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়।
মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামের মৃত ললিত মোহন রায় বাড়ীতে (শীল বাড়ী) মোহাম্মদপুর হিন্দু কল্যাণ পরিষদের আয়োজনে আসন্ন দূর্গাপূজার মন্ডপের দূর্গা প্রতিমার প্রায় অংশ ভাংচুর অবস্থা। আর মাত্র ১৮দিন পর দূর্গাপূজার উৎযাপনের প্রতিমার রূপসজ্জার নানা ধরনের রং করা ছাড়া প্রতিমা তৈরীর সকল কাজ সম্পূর্ণ হয়েছিল। অজ্ঞাতনামা দৃর্বত্তরা সোমবার গভীর রাতে প্ূঁজা মন্ডপের কার্ত্তিক প্রতিমার ডান হাত, লক্ষীদেবীর বাম হাত ও হাতে থাকা কলসী, সিংহের লেজ, দূর্গা মাতার ডান পাশের দু’টি হাত, স্বরস্বতী দেবীর ডান হাত ও গনেশ প্রতিমার ডান হাত ভাংচুর করে।
মোহাম্মদপুর হিন্দু কল্যাণ পরিষদের সভাপতি নারায়রন চন্দ্র দে ও সাঃ সম্পাদক ডাঃ অরুন চন্দ্র আচার্য জানান, প্রায় ১মাস পূর্বে একই গ্রামের প্রতিমা তৈরীর কারিগর যতীন্দ্র আচার্য ৩০ হাজার টাকা চুক্তিতে প্রতিমা তৈরীর কাজ শুরু করেন। ভাংচুরকৃত প্রতিমাটির পূজা উদযাপনের জন্য উপযোগী করে তোলতে কিছু অংশ মেরামত এবং কিছু অংশ নতুন ভাবে করতে আরো ১৫-২০ হাজার টাকা লাগলে আগামী স্বল্প সময়ের মধ্যে কষ্টসাধ্য হলেও দূর্বৃত্তরা এরই মধ্যে এ অপ্রত্যাশিত ঘটনাটি ঘটিয়ে যায়। সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় এরিপোর্ট লিখা পর্যন্ত পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি।

Check Also

কুমিল্লায় ডিবির অভিযানে ১৭ হাজার পিস ইয়াবাসহ ডাক্তার গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টারঃ- রাজধানীতে ইয়াবা পাচারকালে ১৭ হাজার ইয়াবাসহ গ্রেফতার হয়েছেন মো. রেজাউল হক (৪৫) নামের ...

Leave a Reply