‘প্রয়োজনে থানায় দেন, স্কুলে দিয়েন না’ -চৌদ্দগ্রামে পালিয়ে যাওয়া স্কুল ছাত্র

জামাল উদ্দিন স্বপন:

চৌদ্দগ্রামে শিকল বাঁধা অবস্থায় পালিয়ে যাওয়ার সময় স্কুল ছাত্র আটক
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের একটি স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে পড়–য়া আশিক নামের এক ছাত্রকে দু’পায়ে শিকল বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে শিকল বাঁধা অবস্থায় ওই ছাত্র স্কুল থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি তাকে আটক করে।

জানা গেছে, উপজেলা সদরের ট্রেনিং সেন্টার এলাকার ‘চৌদ্দগ্রাম আদর্শ রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ’ নামের স্কুলটিতে কয়েকমাস আগে আশিক ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে আবাসিক বিভাগে ভর্তি হয়। সে পাশ্ববর্তী বাতিসা ইউনিয়নের ডলবা গ্রামের মৃত আহসান উল্যাহর ছেলে। আশিক অভিযোগ করে, বাড়িতে যাইতে চাইলে ছুটি না দিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষ তাকে বিভিন্ন প্রকার নির্যাতন করে। গত সোমবারও তাকে শিকল বেঁধে মারধর করা হয়। এ কারণে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে আশিক শিকল বাঁধা অবস্থায় স্কুল থেকে পালিয়ে যায়। পথিমধ্যে আশিকের এমন অবস্থা দেখে স্থানীয় এক ব্যক্তি তাকে আটক করে তার মাকে খবর দেয়। এসময় আশিক ওই ব্যক্তিসহ উপস্থিত লোকজনকে জানায়, সময় মতো খাওয়া না দিয়ে আমাকে শিকল বেধে নির্যাতন করা হয়। এজন্য আমি পালিয়ে যাই। সে আরো জানায়, ‘আমাকে প্রয়োজনে থানায় দেন, তবুও ওই স্কুলে দিয়েন না’।

সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, আশিকের দুই পায়ে শিকল বাধা। শিকলের সাথে দু’পায়ে দু’টি তালা। উপরের দিকে শিকলের একটি অংশ সে হাত দিয়ে ধরে আছে। দেখতে অবিকল ডান্ডাবেড়ির আসামীর মতো। আশিককে আটক করার কারণে ওই ব্যক্তির সাথে স্কুলের মালিক শহিদুল ইসলাম বাকবিতন্ডা করে। পরে আশিকের মা ছালেহা বেগম ঘটনাস্থলে পৌঁছলে তার হেফাজতে আশিককে ছেড়ে দেয়া হয়।

এব্যাপারে স্কুলের মালিক শহিদুল ইসলাম বলেন, বেশি দুষ্টামী করায় আশিককে শিকল বেধে রাখা হয়। সে আমার আত্মীয়, তাকে নির্যাতন করার প্রশ্নই আসে না। তিনি দাম্বিকতার সাথে আরো বলেন, এবিষয় পত্রিকায় লিখলে আমার কোন ক্ষতি হবে না।

অবশ্য আশিকের মা ছালেহা বেগম এবিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

Check Also

চৌদ্দগ্রামে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত

মোঃ বেলাল হোসাইন, চৌদ্দগ্রাম :– প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মন্ত্রীপরিষদের প্রভাবশালী ব্যাক্তিবর্গকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ছবি ...

Leave a Reply