সরাইলে নারী ভাইস চেয়ারম্যানকে যৌন হয়রানি : থানায় মামলা

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ॥
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে নারী ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা পারভীনকে তার সরকারী দপ্তরে যৌন হয়রানি ও প্রতিবাদে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে গতকাল মঙ্গলবার থানায় যুবলীগ ক্যাডার জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। এদিকে অভিযুক্ত যুবলীগ ক্যাডার জাকিরকে রক্ষা করতে নেমেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী ক’জন নেতা। এ ঘটনায় ওই নারী ভাইস চেয়ারম্যান নিরাপত্তা হীনতায় রয়েছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার দুপুরে উপজেলা পরিষদের নিজ দপ্তরে বসেছিলেন ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা পারভীন (৩৫)। সুযোগে যুবলীগ ক্যাডার জাকির হোসেন (৩৩) নানা অশ্লীল অঙ্গ-ভঙ্গি ও আপত্তিকর কথাবার্তায় নারী ভাইস চেয়ারম্যানকে যৌন হয়রানি করে। এসময় তিনি প্রতিবাদ করলে জাকির তাকে লাঞ্ছিত করে। ওই দিনই তিনি বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন ঠাকুরকে অবহিত করেন। কিন্তু কোন সমাধান না পাওয়ায় সোমবার রাতে তিনি থানায় অভিযোগ করেন।

ভাইস চেয়ারম্যান মাহমুদা পারভীন বলেন, যুবলীগ ক্যাডার জাকির বিভিন্ন সময়ে আমাকে উত্যক্ত করে আসছে। রোববার দিন বদলের সনদ-ভিশন ২০২১ এর অনুষ্ঠান শেষে দুপুরে নিজ দপ্তরে বসে থাকা অবস্থায় জাকির আমাকে যৌন হয়রানি করে। তাৎক্ষনিক বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যনকে জানালে তার সামনেই জাকির আমাকে লাঞ্ছিত করে। ওই যুবলীগ ক্যাডার উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাতিজি জামাই। তিনি আরও বলেন, জাকিরকে রক্ষা সহ ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে উপজেলা আ’লীগের ক’জন নেতা উঠে পড়ে লেগেছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক হাজী মাহফুজ আলী বলেন, জাকির যুবলীগের কেউ নয়। অপরাধী যেই হোক তার শাস্তি হওয়া উচিত।

সরাইল উপজেলা চেয়ারম্যান ও আওয়ামীগ সাধারণ সম্পাদক হাজী রফিক উদ্দিন ঠাকুর বলেন, ঘটনাটি জানার পর আমি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হালিমকে বিষয়টি অবহিত করেছিলাম। এখন যেহেতু থানায় মামলা হয়েছে দেখা যাক কি হয়।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গিয়াস উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply