জলে ভাসা পদ্ম

মফজিুল ইসলাম খান

কূল নেই অকূলে ভাসি জীবন নদীর জলে

আমি এক অজাত পদ্ম

এপারে ধাক্কা ওপারে বিষের শুল

চরকির মতো ঘুরছি ভন্ভন্

বহতা নদীর বুকে অবিরাম

বেওয়ারিশ মানব জলে ভাসা

এক অজাত পদ্ম।

কখনো উত্তরে যাই কখনো দক্ষিণে

বন বনানীর ছায়া উদাস করে হিয়া

তবু আমার হয় না ঠাঁই নূরা পাগলার

মশগুল আস্তানায় রাতদিন ঝড় তুলে

ন্যাংটি পরা গানের পাখি দিওয়ানা বানায়

বিনা নোটিশে তাড়িয়ে দেয় পশ্চিমে।

পশ্চিমে নদীর জল উতাল পাতাল

আমাকে ভাসিয়ে নেয় ঘূর্ণি হাওয়ার বনে

কাঁটার আঘাতে দেহ বিষের কলসী

ভেসে যায় উজানে পূর্বা নদীর জলে

উপবাসী হাঙ্গর ঘুম পাড়ায় খানিকক্ষণ।

নিশুতি রাতের বাঁশি পাগলা হাওয়ার তোড়ে

ফিরিয়ে আনে আবার উত্তর দক্ষিণে

বহতা নদীর বুকে ছলাৎ ছলাৎ ঢেউ

ভেসে যাই একা একা জলে ভাসা

এক অজাত পদ্ম।

Check Also

চারদিকে রক্তের দাগ

–মো.আলী আশরাফ খান একদা আমি জন্মেছিলাম এক সবুজ-শ্যামল-কোমল মৃত্তিকায়, দিনে দিনে তা বদলাতে বদলাতে ভিন্ন ...

Leave a Reply