সরাইলে বছর শুরুতেই ২ খুন ১ কিশোরীর মৃত্যু : প্রশাসন উদ্বিগ্ন

আরিফুল ইসলাম সুমন, সরাইল :
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে নতুন বছরের শুরুতেই পৃথক হামলা-সংঘর্ষে ২ খুন ও এক কিশোরীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও সংঘর্ষে আহত হয় শিশু সহ অর্ধশতাধিক নারী-পুরুষ। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার, গোষ্ঠিগত দ্বন্দ্ব ও পারিবারিক কলহের কারণেই এ অপ্রীতিকর ঘটনাগুলো ঘটেছে। এসব ঘটনায় উপজেলার সাধারণ মানুষ, জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা রয়েছেন উদ্বেগ-উৎকন্ঠায়। এ প্রসঙ্গে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. গিয়াস উদ্দিন আক্ষেপ করে বলেন, নববর্ষের দিনে আমার এলাকায় খুন। বিষয়টিতে খুব দুঃখ পেয়েছি। তবে পুলিশ এসব বিষয়ে তৎপর রয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, গত ৪ জানুয়ারী সকালে উপজেলার কুট্টাপাড়া গ্রামে পরিবহন বিষয় নিয়ে দু’দলের সংঘর্ষে টেটাবিদ্ধ হয়ে নিহত হন ঈমান আলীর পুত্র গাড়ি চালক রিপন মিয়া (৩৫)। ২ জানুয়ারী রসুলপুর গ্রামে ফাতেমা আক্তার নামে এক কিশোরীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়। সে গ্রামের কৃষক তাজু মিয়ার কন্যা। ১লা জানুয়ারী সন্ধ্যায় টাকা লেনদেনের বিষয়কে কেন্দ্র করে দেওড়া গ্রামে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে খুন হয় সোহরাব উল্লাহ ঠাকুর(৫০)। তিনি গ্রামের মৃত ফরিদ উদ্দিন ঠাকুরের পুত্র। এ তিনটি মৃত্যুর ঘটনায় সরাইল থানায় মামলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সাফায়াৎ মুহম্মদ শাহে দুল ইসলাম বলেন, নববর্ষের দিনে কোনো অশুভ ঘটনা কেউ কামনা করে না। কিন্তু এখানে খুনের ঘটনা ঘটেছে। দু’দিন পর আবার সংঘর্ষ-খুন, একের পর এক ঘটে যাওয়া বিষয়গুলো সবার জন্যই দুঃখ ও লজ্জার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এসব ঘটনা রোধ করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়া প্রয়োজন। তিনি বলেন, পুলিশ এসব প্রতিরোধে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে সরাইল থানায় লোকবল ও যানবাহনের সঙ্কট রয়েছে।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply