সরাইলে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে নিহত ১ : আহত ৫০, গ্রেপ্তার ২

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ॥

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে পরিবহন বিষয় নিয়ে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে রিপন মিয়া (৩৫) নিহত ও উভয় পক্ষের মহিলা সহ অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের কুট্টাপাড়ার দর্জিপাড়া ও পান্ডবহাটি গ্রামের লোকদের মাঝে এ সংঘর্ষ বাঁধে। প্রায় তিন ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে পুলিশ ১৬ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৭ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় বেলা ১১টার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে আহত সুলু মিয়া (৪০), সাকিল (১৫), জুনায়েদ (২০) ও শাকিল (২০) সরাইল হাসপাতালে চিকিৎসা নিলেও পুলিশি গ্রেপ্তার এড়াতে অন্যান্য আহতরা বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা নেয়। দুপুরের দিকে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে কুট্টাপাড়া গ্রামের দর্জিপাড়ার নান্নু মিয়ার পুত্র সাচ্চু ও পান্ডবহাটির জাহাঙ্গীর মিয়ার পুত্র রায়হানের মধ্যে পরিবহন বিষয় নিয়ে প্রথমে বাকবিতন্ডা হয়। পরে সাচ্চুর লোকজন রায়হানের বাড়িতে হামলা চালায়। এর জের ধরে বুধবার সকাল ৮টার দিকে গ্রামে দু’দলের লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে পান্ডবহাটির ঈমান আলীর পুত্র রিপন মিয়া বল্লম বিদ্ধ হন। গুরুতর অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

এ ব্যাপারে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের লাশ মর্গে রয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply