কুসিক নির্বাচনে শেষ মুহুর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত ৫ মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা

কুমিল্লা প্রতিনিধি :
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শেষ মুহুর্তের প্রচারণায় ব্যস্ত ৫ মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। গতকাল সকাল থেকেই গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে প্রার্থীরা বের হয়ে যান প্রচারণা চালাতে। প্রার্থীদের সাথে সাথে প্রার্থীদের সহধর্মিনীরা মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় ভোট চেয়ে চষে বেড়াচ্ছেন। আজ প্রচারণার শেষ দিন। প্রার্থীদের প্রচারণা ও তাদের প্রতিশ্র“তি নিয়ে নিুের এই প্রতিবেদন।

মেয়র প্রার্থী অধ্যক্ষ আফজল খানঃ

মেয়র প্রার্থী আফজল খান গতকাল সকাল থেকে সদর দক্ষিণের তারাপাইয়া, লৈপুড়া, দিশাবন, কাজীপাড়া, রাজাপাড়া,ঢুলীপাড়া, নেওড়া ও চকবাজার এলাকায় গণসংযোগ করেছেন। এসময় তার সাথে তার বড় ছেলে ডাঃ নোমান, ছোট ছেলে মাসুদ পারভেজ খান ইমরানসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা ছিল। এছাড়া বিকেল ৪টায় গর্জনখোলা, সন্ধ্যা ৬টায় টিক্কাচরের মনোহর আলীর বাড়ীতে এবং রাত ৮ টায় ঠাকুরপাড়ার কালী গাছতলা মাঠে উঠান বৈঠক করেন। এছাড়া আফজল খান পতœী নার্গিস আফজল গতকাল রাতে কান্দিরপাড়ের মিডপয়েন্টের সামনে গণসংযোগে অংশ নেন।

মেয়র প্রার্থী আফজল খান শেষ মুর্হুতের প্রচারণা চালাতে গিয়ে ভোটারদের উদ্দ্যেশে বলেন, আমার জীবনের শেষ মুহুর্তে আমাকে বিজয়ী করে কুমিল্লাবাসীকে আবার সেবা করার সুযোগ দিন। আমি একটি সুন্দর সিটি কর্পোরেশন আপনাদের উপহার দিতে চাই, যেখানে থাকবেনা কোন সমস্যা, থাকবেনা কোন না পাওয়ার হতাশা।

মেয়র প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুঃ

মেয়র প্রার্থী সাবেক পৌর মেয়র মনিরুল হক সাক্কু গতকাল সকালে মহানগরের কাটাবিল, হযরতপাড়া, ডায়াবেটিকস হাসপাতাল, নগর ভবন, জেলা পরিষদ, কুমিল্লা কারাগারে গণসংযোগ করেন। বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত কুমিল্লা বার্ড, জাদুঘর, সালমানপুর ,গন্ধামতি ও রামপুর এলাকায় ৫টি উঠান বৈঠকে অংশ নেন।

বিএনপি থেকে অব্যাহতি পাওয়া সাক্কুর গণসংযোগে বিএনপির কর্মীদের পাশাপাশি থানা পর্যায়ের নেতারা অংশ নিচ্ছে। এদের মধ্যে অন্যতম হল সদর দক্ষিণ বিএনপি থানা কমিটির সভাপতি মাহবুব চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য মনিরল হক চৌধুরীর ছোট ভাই জহিরুল হক চৌধুরী।

মেয়র প্রার্থী সাক্কু শেষ মুর্হুতের প্রচারণা চালাতে গিয়ে ভোটারদের উদ্দ্যেশে বলেন, আপনারা আমাকে আবার মেয়র হওয়ার সুযোগ দিন আমি আপনাদের একটি সম্পূর্ণ বাস্তবমুখী সিটি কর্পোরেশন উপহার দিব। আমি অতীতেও অনেক কাজ করেছি। ভালো কাজ করার চেষ্টা করেছি আমার সবোর্চ্চ সামর্থ্য অনুযায়ী। অনেক কাজ বাকী রয়েছে। তা পূর্ণ করতে চাই এবার মেয়র হয়ে। আর মেয়র হতে হলে আপনাদের ভালবাসা চাই, চাই দোয়া আর চাই একটি মূল্যবান ভোট।

মেয়র প্রার্থী এয়ার আহমেদ সেলিমঃ

মেয়র প্রার্থী সেলিম গতকাল সদর দক্ষিণের রাজাপাড়া, ঢুলীপাড়া, আশ্রাফপুর এলাকায় গণসংযোগ করেন। এছাড়া মোগলটুলী, বাগিচাঁগাও, পুলিশ লাইন এলাকায় তিনি পথসভা করেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী কাজী জাফর আহমেদ, সাবেক এমপি তাজুল ইসলাম চৌধুরী, জাতীয় পার্টির সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম আলম।

মেয়র প্রার্থী এয়ার আহমেদ সেলিম শেষ মুর্হুতের প্রচারণা চালাতে গিয়ে বলেন, সময় ও সুযোগের অভাবে আমি সবার কাছে যেতে পারিনি। এই জন্য আমি দুঃখিত। কুমিল্লাবাসির প্রতি আমার অনুরোধ ৫ তারিখ আপনারা আমাকে আপনাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে কালোটাকা,অস্ত্রবাজ,সন্ত্রাস ও খুনিদের বিরুদ্ধে রায় দিন। আমি একটি পরিকল্পনা করে এই সিটিকে সাজাবো। যেখানে থাকবেনা কোন টেন্ডারবাজি, অস্ত্রের খেলা, ভুমি দখল আর চাদাঁবাজি। কুমিল্লাকে সাজাতে হলে আপনাদের ভোটটি সঠিক জায়গায় প্রয়োগ করুন।

মেয়র প্রার্থী নুর উর রহমান মাহমুদ তানিমঃ

মেয়র প্রার্থী নুর উর রহমান মাহমুদ তানিম গতকাল সকালে কালিয়াজুড়ী, ঝাউতলা, রেইসকোর্স এবং বিকেলে বিশ্বরোড,সামবকসি, চৌয়ারা এলাকায় গণসংযোগ করেন। রাতে মুরাদপুরে উঠান বৈঠক করেন। তাছাড়া রাতে চকবাজার, ছাতিপট্রি, তেলিকোনা এবং কান্দিরপাড়ে পথসভা করেন।

মেয়র প্রার্থী তানিম শেষ মুর্হুতের প্রচারণা চালাতে গিয়ে বলেন, কুমিল্লার জনগণ নবীন প্রার্থী চায়। তারা অতীতে ভোট দিয়ে অনেককে দেখেছে। কুমিল্লার উন্নয়নের জন্য কেউ আন্তরিক ছিলনা। আজ কুমিল্লা অবহেলিত। হারিয়েছে অতীত ঐতিহ্য। আমি কুমিল্লার হারানো এতিহ্য ফিরিয়ে আনতে চাই। মাদকে ছেয়ে যাওয়া কুমিল্লাকে মাদকমুক্ত করতে চাই। শিক্ষার হার বাড়ানোর জন্য কাজ করব। কুমিল্লার যুবকদের জন্য আমি কাজ করব। কুমিল্লার অনেক খালি জায়গা আছে, আমি সেখানে কর্মক্ষেত্র গড়ে তুলব। কুমিল্লা পরিচিত হবে অন্যতম অর্থনৈতিক জোন হিসেবে। আপনারা ৫ তারিখ ভুল জায়গায় ভোট দিয়ে ভুল করবেননা। আমাকে সুযোগ দেন। আমি আপনাদের নিয়ে প্রাণ খুলে কাজ করব। সবসময় আপনারা আমাকে আপনাদের পাশে পাবেন।

মেয়র প্রার্থী আনিসুর রহমান মিঠুঃ

মেয়র প্রার্থী মিঠু গতকাল সকালে মহানগরের ইপিজেড, মঠপুষ্কুনি ,রামপুর ও বার্ড এলাকায় গণসংযোগ করেন। বিকেল বেলায় হযরতপাড়া, কাটাবিল,নুরপুর ও সংরাইশ এলাকায় গণসংযোগ করেন।

মেয়র প্রার্থী মিঠু শেষ মুর্হুতের প্রচারণা চালাতে গিয়ে বলেন, আশা করি আপনারা সন্ত্রাস ও খুনিদের বিরুদ্ধে রায় দিবেন। তারুণ্য বদলে দিবে সমাজ-এই শ্লোগানকে সমর্থন দিয়ে আপনারা সন্ত্রাস, চাদাঁবাজ, টেন্ডারবাজ, খুনিদের বিরুদ্ধে রায় দিয়ে আপনারা প্রমাণ করুন কুমিল্লাবাসি সচেতন। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে কুমিল্লা সিটি নবরূপে সত্যিকার মডেল সিটিতে পরিণত হবে।

এছাড়া প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থীরা তাদের স্বস্ব নির্বাচনী এলাকায় গণসংযোগে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply