সরাইলে সড়ক দূর্ঘটনায় একই পরিবারের ৪ জন নিহত, আহত ৬ :‘স্বামীকে আনতে গিয়ে লাশ হলো রোজিনা’

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ॥

বুধবার সকালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ইসলামাবাদ নামক স্থানে ট্্রাক ও যাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশু সহ একই পরিবারের চার জন নিহত হয়েছে। আহত হয় মাইক্রোবাস যাত্রী আরো ছয় জন। তাদের বাড়ি উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামে। দূর্ঘটনার পর গাড়ি দু’টি আটক হলেও চালকরা পালিয়ে যায়। একই গ্রামের এক পরিবারের শিশুসহ ১০ জনের হতাহতের ঘটনায় পুরো শাহবাজপুরে চলছে শোকের মাতম।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, শাহবাজপুর গ্রামের আব্দুল লতিফ মিয়ার জামাতা ও ভাইপো কুয়েত প্রবাসী কামাল মিয়া গতকাল দেশে ফেরার কথা। বিমানবন্দর থেকে তাকে বাড়িতে আনার জন্য কামালের শ্বশুর লতিফ মিয়া, স্ত্রী রোজিনা আক্তার সহ স্বজনরা একটি মাইক্রোবাস (ঢাকা মেট্রো-চ, ১৩-২৩০৩) যোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। সকালে মহাসড়কের ইসলামাবাদ নামক স্থানে বেপরোয়া গতির একটি ট্রাকের (ঢাকা মেট্রো-ট, ১৬-১১১৬) মুখোমুখি সংঘর্ষে মাইক্রোবাসটি দুমড়ে মুচড়ে পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন কামালের শ্বশুর আঃ লতিফ মিয়া (৫৫), স্ত্রী রোজিনা আক্তার (২৪), কামালের ভাগ্নি কান্তা আক্তার (১৫)। মুমূর্ষ অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায় কামালের ভাগ্নে রিয়াদ (১০)। আহত হয় পরিবারের সদস্য শান্তা বেগম (২০), বায়েজিদ (১২), জামাল মিয়া (৩৫), মাসুদ মিয়া (৩৬), সারোয়ার (১০) ও সোহাগ (১৮)। তাদের মধ্যে নিহত কান্তার বড় বোন শান্তা, শিশু বায়েজিদ, ও সোহাগ মিয়াকে আশংকাজনক অবস্থায় ব্রা‏‏হ্মণবাড়িয় জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শোকাহত পরিবার সূত্র জানান, পাঁচ বছর আগে চাচাত ভাই কামালের সাথে বিয়ে হয় রোজিনার। তাদের কোন সন্তান নেই। প্রবাসে দুই বছর চাকুরীর পর ছুঁটিতে আসছেন কামাল। বুধবার সারারাত ছটফট করেছে রোজিনা। কখন সকাল হবে, স্বামীকে আনতে বিমানবন্দর যাবে। পরিবারের ছোট-বড় সকলেই ছিলেন মহা আনন্দে। তাদের সেই আনন্দ স্থায়ী হয়নি। বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় লাশ হয়ে বাড়ি ফিরল রোজিনা সহ চার জন।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply