বিজয়ের ৪০বছরেও রেহেনার স্বীকৃতি মিলেনি !

কুমিল্লা সংবাদদাতা :

রেহেনা পারভিন
রেহেনা পারভিন,পিতা মৃত সেকান্দর আলী। সাং বিন্দিয়ার চর প্রকাশ ঝুমুর। ময়নামতি ইউনিয়ন। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযোদ্ধে সেনাবাহিনী স্থানীয় মুক্তিকামী মানুষের বাড়িঘর জ্বালিয়ে দিলে বহুলোক আশ্রয়হীন হয়ে পড়ে। এদেরই একজন রেহেনা। একসময় মুক্তিযোদ্ধাদের রান্নাবান্না ও পরে সোর্স হিসেবে কাজ শুরু করে। মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে এই বিরাঙ্গনা শত্র“পক্ষের হাতে আটকের পূর্বে বেশ ক’টি অপারেশনে অংশ নিয়ে ১৫/২০জন শত্র“সেনাকে হত্যায় প্রত্যক্ষ ভূমিকা রাখে। রেহেনা বলেন,যুদ্ধ শুরুর পরবর্তী মাসে (এপ্রিল) স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের একটিদল শত্র“সেনাদের উপর হামলার উদ্দেশ্যে ময়নামতি থেকে কংশনগর এলাকায় যাত্রা করে পায়ে হেটে। রেহেনাকে আগাম খবর সংগ্রহের জন্য বাসযোগে পাঠানো হয়েছিল। ময়নামতি সাহেবের বাজার থেকে বাসে যাত্রা করে প্রায় ১কিলোমিটার দুরে ময়নামতি রেশম প্রকল্প এলাকায় পৌছলেপাক আর্মি বাস তল্লাশী করে রেহেনাকে টেনে হেচরে নামিয়ে আনে। এসময় নিরস্ত্র রেহেনা প্রতিরোধের চেষ্টা করলে রাইফেলের বাটের আঘাতে মারাত্বক জখম হয়। এরপর আর মনে নেই। যখন জ্ঞানফেরে তখন সে নিজেকে ময়নামতি সেনানিবাসে নিজেকে আবিস্কার করে। মুক্তিুদ্ধের শেষ দিন পর্যন্ত বন্দী ছিলেন। এসময় তাকে পরিধানের জন্য শুধুমাত্র একটা তোয়ালে সরবরাহ করা হয়েছিল। নির্যাতন ছিল প্রাত্যাহিক ঘটনা। ১৯৭১সালের ১৭ডিসেম্বর যেদিন কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট দখল মুক্ত হয় সেদিন রেহেনারও মুক্তি মিলে। এরপর কুমিল্লা নগরীর নুরপুর এলাকায় সরকারী আশ্রয় কেন্দ্রে ঠাই হয়। পরে অসুস্থ রেহেনার জন্য চিকিৎসা ব্যবস্থা করা হয় ঢাকায়। রেহেনা বলেন,কিছুদিন চিকিৎসার পর হাসপাতালে অযন্ত অবহেলায় বেড়িয়ে আসেন রাস্তায়। একসময় চলে যান জীবিকার সন্ধানে দিনাজপুরে।সেখানে পরিবার কল্যান পরিদর্শিকা হিসেবে চাকরী জোটে। স্বাধীনতার ৪০ বছরেও তার কপালে জুটেনি মুক্তিযোদ্ধা বা বীরাঙ্গনার খেতাব। বর্তমানে সে রাংঙ্গামাটিতে কর্মরত। স্বাধীরতার এই দীর্ঘ সময়ে তিনি ঘুড়েছেন বিভিন্নস্থানে স্বীকৃতি জোটেনি। আজ ৪০বছর পর এসে তার আবেদন আদৌকি আমার স্বীকৃতি মিলবে?

Check Also

বুড়িচংয়ের ময়নামতি রেজভিয়া দরবার শরীফের প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল

বুড়িচং(কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ– কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার ময়নামতি ইউনিয়নের শমেষপুর গ্রামে বুধবার রাতে ওয়াজ মাহফিলে মোল্লা নাজিম ...

Leave a Reply