সরাইলে মহাসড়কে গণডাকাতি আহত ১০: তিন ঘন্টা সড়ক অবরোধ : দুই ডাকাত আটক

সরাইল (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ॥

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ইসলামাবাদ নামকস্থানে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে সংঘবদ্ধ ডাকাত দল যানবাহনে গণডাকাতি চালায়। এসময় ডাকাতরা যাত্রীদের কাছ থেকে নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার ও বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী লুটে নেয়। ডাকাতদের মারধর ও ছুরিকাঘাতে চালকসহ অন্তত ১০ যাত্রী আহত হয়। ডাকাতিকালে যাত্রী ও চালকদের আর্তচিৎকারে মহাসড়কের আশপাশের স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে ডাকাতদলকে ধাওয়া করে। এসময় জনতার হাতে দুই ডাকাত আটক হয়।

পুলিশ, আহত যাত্রী ও স্থানীয়রা জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ইসলামাবাদ নামকস্থানে সংঘবদ্ধ ডাকাত দল মহাসড়কে ব্লক ফেলে দূরপাল্লার গাড়িগুলোর গতিরোধ করে। ডাকাতরা ১০/১২টি যাত্রীবাহী বাস ও পণ্যবাহী ট্্রাকে গণডাকাতি চালায়। এসময় ডাকাতরা যাত্রীদের মারধর ও ছুরিকাঘাত করে তাদের সর্বস্ব লুটে নেয়। এতে ১০ ব্যক্তি আহত হয়। আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নেন। আহতদের আর্তচিৎকারে স্থানীয় লোকজন এসে ডাকাত দলকে ধাওয়া করে। স্থানীয় জনতা দুই ডাকাতকে আটকের পর গণধোলাই দেন। খবর পেয়ে বিশ্বরোড ফাঁড়ির হাইওয়ে পুলিশ আটক ডাকাত দু’জনকে উদ্ধার করে সরাইল থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। আটক ডাকাত দু’জন হচ্ছে সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের নন্দনপুর গ্রামের জসিম উদ্দিন ওরফে কাইল্লা ডাকাত (২৭) ও সরাইল উপজেলার কালীকচ্ছ গ্রামের জামির হোসেন ওরফে পিস্তল জামির (২৭)।

এদিকে মহাসড়কের ওই স্থানে প্রতিনিয়ত ডাকাতি হওয়ার কারণে উত্তেজিত কয়েকশত জনতা ও গাড়ি চালক এলাপাতাড়ি যানবাহন রেখে মহাসড়কে সব ধরনের যানচলাচল বন্ধ করে দেন। এতে ভোর সাড়ে পাঁচটা থেকে সকাল সাড়ে আটটা পর্যন্ত মহাসড়কের দুই পাশে দীর্ঘ ১০ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে সরাইল থানার ওসি সকাল আটটা পর্যন্ত মহাসড়কে পুলিশি টহল রাখার প্রতিশ্রুতি দিলে জনতা অবরোধ তুলে নেন।

এ প্রসঙ্গে বিশ্বরোড হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নুর হায়দার তালুকদার বলেন, মহাসড়কের সরাইল বেড়তলা থেকে বিশ্বরোড মোড় পর্যন্ত নিরাপত্তার দায়িত্ব হাইওয়ে পুলিশের। যেখানে ডাকাতির ঘটনাটি ঘটেছে, সেই এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্ব সরাইল থানা পুলিশের।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, হাইওয়ে পুলিশ বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। দুই ডাকাত গ্রেফতার হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply