দাউদকান্দিতে স্কুলছাত্রীর অশ্ল­ীল ভিডিও ধারন করে চাঁদা দাবী

শামীমা সুলতানা ॥
দাউদকান্দির সুন্দলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর এক ছাত্রীর জোরপূর্বক অশ্ল­ীল ভিডিও ধারণ করে বখাটেরা। আর সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা চাঁদা দাবী করে লম্পটের দল। ২৭ অক্টোবর বখাটেদের দাবীকৃত চাঁদা না দেয়ায় বিভিন্ন মোবাইল ফোনে স্কুলছাত্রীর নগ্ন ছবি ছড়িয়ে দেয়। ছাত্রীর বাবা শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে দাউদকান্দি থানায় এ ব্যাপারে মামলা করেন। ছাত্রীর পরিবার ও থানা পুলিশ সুত্রে জানা যায়, সুন্দলপুর স্কুলের দ্বিতীয় সাময়িক পরীক্ষা শেষে ওই ছাত্রী বাড়িতে ফেরার সময় পথে প্রাইভেট শিক্ষক হুমায়ন কবিরের ছেলে দশম শ্রেনীতে পড়–য়া মোস্তফা কামাল শুভ (১৬) তার বাবা পরীক্ষার সাজেশন দিবে বলে ওই ছাত্রীকে বাসায় নিয়ে যায় এবং বাসায় কেউ না থাকায় তিনজন বখাটে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় শিক্ষক আসছে টের পেয়ে তারা চলে যায়। মেয়েটি লোকলজ্জার ভয়ে কাউকে কিছু না বলে বাড়ি চলে যায়। গত ২১ অক্টোবর অজ্ঞাতপরিচয় তিন বখাটে ওই স্কুল ছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে তার মায়ের কাছে মেয়ের অশ্লীল ভিডিও আছে বলে জানায়। তাদেরকে পঞ্চাশ হাজার টাকা দিলে এগুলো ফেরত দিয়ে দিবে, নইলে ইন্টারনেটে ছেড়ে দেবে বলে হুমকি দেয়। মেয়ের কাছে মা ঘটনা জানতে চাইলে সে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। পরে সে বিষয়টি খুলে বলে। স্কুল ছাত্রীর বাবা শফিকুল ইসলাম জানান, তারা মেয়ের ভবিষ্যতের কথা ভেবে বিষয়টি চেপে রাখার চেষ্টা করেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। গত বৃহস্পতিবার অশ্ল­ীল ভিডিওটি বখাটেরা ইন্টারনেটে ছেড়ে দেয়। এ ব্যাপারে গত বৃহস্পতিবার মেয়ের বাবা সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে মাহবুব, মোস্তাফা কামাল শুভ, জাকারিয়া, মেহেদী ও ইমনকে আসামী করে থানায় মামলা করেন।

দাউদকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ ফজলে রাব্বি জানান, বখাটেদের ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে। এ ব্যাপারে সুন্দলপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আসলাম মিয়াজীর সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, এ সংবাদটি আমি শুনেছি, এ ঘটনায় জড়িতদের অবশ্যই দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিৎ এবং আমি এ ঘটনার তীব্্র নিন্দা জানাই। অপরদিকে দাউদকান্দি উপজেলা ইভটিজিং প্রতিরোধ কমিটির আহবায়ক কবি মো.আলী আশরাফ খান ও সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম লিপু বলেন, ‘ছেলেমেয়েদের প্রতি অভিভাবকরা উদাসীন হওয়ায় এসব ঘটনা ঘটছে। পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ, রাজনীতির কুপ্রভাব ও প্রশাসনের সুদৃষ্টির অভাবে সমাজে ভয়াবহ যৌনসন্ত্রাস বেড়ে চলছে। আমরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই এবং এর সঙ্গে জড়িতদের কঠোর শাস্তি দাবি করছি’। এ বিষয়ে সুন্দলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ বদরুল মিল্লাত বলেন, ঘটনাটি স্কুলের বাহিরে ঘটেছে এ বিষয়ে আমার কিছু বলার নেই। তাছাড়া কয়েকদিন ধরে ওই ছাত্রী ও ছাত্ররা স্কুলেও আসছে না।

Check Also

দাউদকান্দিতে সড়ক দুর্ঘটনার কবলে খন্দকার মোশাররফ হোসেনের গাড়িবহর : ছাত্রদলকর্মী নিহত

দাউদকান্দি প্রতিনিধি :– কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে বিএনপি নেতা ড. খন্দকার মোশাররফ ...

Leave a Reply