নবীনগরে প্রেমের দায়ে জুতাপেটা, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ –
প্রেম করার অপরাধে উপজেলার পৌর এলাকার আলমনগর গ্রামে মঙ্গঁলবার রাতে এক সালিশ বৈঠকে প্রেম পাগল এক যুবককে জুতার বারি, ১০০ বার কানধরে উঠবস ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে সালিশকারকরা ।

জানা গেছে ওই গ্রামের মধ্য পাড়ার হারুন মিয়ার ছেলে মোঃ আওলাদ মিয়া ভালবাসে একই পাড়ার আমজাদ মিয়ার মেয়ে খোসবানু কে। ছেলেটি দীর্ঘদিন ধরে ওই মেয়েটিকে ভালবেসে আসছে। মেয়েটিও তার প্রেমে সাড়া দেয়। এক পর্যায়ে মেয়ের পরিবার ঘটনাটি জেনে মেয়েটিকে শাঁসায় তার পরিবার। পরিবারের চাপে মেয়েটি ছেলের ভালবাসাকে অস্বীকার করে। প্রভাব প্রতিপত্তিতে ছেলের পরিবার থেকে মেয়ের পরিবার শক্তিশালী হওয়ায় সমপ্রতি ছেলেটিকে মেয়ের পরিবারের লোকজন প্রচন্ড মারধর করে। কিন্তু প্রেম পাগল ওই যুবক মার খেয়েও তার মন থেকে ভালবাসা মুছে যেতে দেয়নি। ভালবাসা এমনটাই হয়, অবুঝ মন মানে না কোন শাসন বারণ, তাই তো ওই প্রেম পাগল যুবক মঙ্গঁলবার কথা বলতে যায় মেয়ের সাথে।

মেয়েটি ভালবাসার অভিনয়ের কৌশলে ছেলেটিকে তার বাড়িতে নিয়ে যায়। মেয়ের পরিবারের লোকজন ছেলেটেকে প্রচন্ড মারধর করে বেঁধে রাখে। রাতে গ্রামের সর্দারদের উপস্থিতিতে মেয়ের বাড়িতে সালিশ বৈঠক বসিয়ে উক্ত রায় প্রদান করা হয় । এ ব্যাপারে ওই সালিশ সভায় উপস্থিত গ্রামের সর্দার মোঃ লিল মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি বলেন “ছেলেটি মেয়েটিকে প্রায়ই উত্তপ্ত করত, আমি বিচার করিনি উপস্থিত ছিলাম, বিষয়টি তাদের পারিবারিক, ছেলে মেয়ে একই গোষ্ঠির, বিচার তারাই করেছে।”

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply