রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কবিরাজ গ্রেফতার

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ –
জিনের বাদশার ওষুধ খেয়ে ১ রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ¯^‡NvwlZ এক জিনের বাদশাহ ও কবিরাজকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে জনতা। এসময় তার আসত্মানাও ভেঙে ফেলে গ্রামবাসী। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শুক্রবার ভোরে সদর উপজেলার বুধল ইউনিয়নের সুতিয়ারা গ্রামে। গ্রেপ্তারকৃত জিনের বাদশার নাম আল-আমিন-(২৫)। সে এই গ্রামের আব্দুল আহাদের পুত্র।
সুতিয়ারা গ্রামের কুতুব উদ্দিন জানান, সুতিয়ারা গ্রামের দিন মজুর আল-আমিন গত ৪/৫ বছর ধরে নিজেকে এলাকায় জিনের বাদশাহ পরিচয় দিয়ে নিজ বাড়িতে লাল নিশান টানিয়ে আসত্মানা গড়ে তোলে। প্রতিদিন দূর-দূরানত্ম থেকে প্রচুর লোক আসত তার বাড়িতে তাবিজ,পড়া পানি সহ ওষুধ।
গত বৃহস্পতিবার কবিরাজ আল-আমিন ঢাকার বংশালে ব্যাগ কারখানায় কর্মরত সুতিয়ারা গ্রামের শ্রমিক মোঃ আলী,নাছির মিয়া, জাকির মিয়ার কাছে তার ছোট ভাই শাহআলমের মাধ্যমে রুচির সিরাপ পাঠায়। রাতের বেলা এই ওষুধ খেয়ে ৪জনই জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। সাথে সাথে তাদেরকে ঢাকা ন্যাশনাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাদের অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে মিটফোর্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই জাকির মিয়া -(৩০) মারা যায়। এ ঘটনা এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ভোর রাতে সুতিয়ারা গ্রামের লোকজন জিনের বাদশার বাড়িতে হামলা চালিয়ে তার আসত্মানা ভেঙে ফেলে পরে তাকে আটক করে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় গতকাল ঢাকার বংশাল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। অসুস্থ ৩জন মিটফোর্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
সদর থানা হাজতে আটক অভিযুক্ত কবিরাজ আল আমীন জানান, আমি টিউবওয়েলের সাদা পানির সাথে সাল্টু লবণ মিশিয়ে মন্ত্র পড়ে ‘ফুঁ’ দিয়ে দিয়েছি। নিশ্চয় এই পানির সাথে বিষ মিশানো হয়েছে।
এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ওসি মোঃ আবদূর রব বলেন, আল-আমিন ভুয়া কবিরাজ। তাকে ঢাকায় পাঠানো হবে।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply