আইন শৃঙ্খলা সভায় বক্তারা ! সরাইলে দাঙ্গা বৃদ্ধির জন্য গ্রাম্য সালিশ দায়ী

আরিফুল ইসলাম সুমন, সরাইল::
ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার সরাইলের বিভিন্ন এলাকায় সাম্প্রতিক দাঙ্গা-হাঙ্গামা আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। বাড়ি-ঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও যানবাহনে ভাংচুরসহ লুটপাট চালানো হয়েছে ব্যাপকহারে। রাক্ত হয়েছে শত শত নারী-পুরুষ, শিশু। বেশক’টি সংঘর্ষে পুলিশও আহত হয়। দাঙ্গায় প্রানহানির ঘটনা ঘটেছে। উপজেলায় একের পর এক দাঙ্গা-হাঙ্গামার জন্য বক্তারা গ্রাম্য সালিশ ব্যবস্থাকে দায়ী করেছেন আইন শৃঙ্খলা সভায়।
গতকাল রোববার সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম শাহেদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আইন শৃঙ্খলা সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা রফিক উদ্দিন ঠাকুর। বক্তব্য রাখেন- উপজেলার নয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানরা, স্থানীয় প্রেসকাব সম্পাদক বদর উদ্দিন, আ’লীগ নেতা এআই মনোয়ার উদ্দিন মদন ও সাদেক মিয়া প্রমূখ। বক্তারা সভায় উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গোষ্ঠিতে গোষ্ঠিতে, দু’গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে রক্তয়ী সংঘর্ষ এখন নিত্য দিনের ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর কারণে অনেক মূল্যবান জীবন অকালে ঝড়ে গেছে। অঙ্গ-হানির ঘটনাও ঘটেছে। এর জন্য দায়ী গ্রামের দুর্বল সালিশ ব্যবস্থা। এই দায়সারা সালিশের কারণে এলাকায় দাঙ্গাবাজরা আরো উজ্জিবিত ও সংঘটিত হচ্ছে। আইনের যথাযথ প্রয়োগ না থাকার কারণে বৃদ্ধি পাচ্ছে দাঙ্গা সংঘর্ষ। সভায় সকলের ঐক্যমতে সিদ্ধান্ত হয় এখন থেকে দাঙ্গার বিষয়গুলো দেখবে আইন শৃঙ্খলা রাকারী বাহিনী। আর গ্রাম্য সালিশ নয়।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply