ট্রানজিটের ২৯৯টন পণ্য গেছে আগরতলায়

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ
পরীক্ষামূলক ট্রানজিটে তৃতীয় চালানে ৯৩ টন গ্যালভানাইজ স্টিল সিট আখাউড়া স্থলবন্দর দিয়ে আগরতলায় গেছে। ভারতীয় ৮টি ট্রাকে করে আখাউড়া স্থলবন্দর ওপেন ইয়ার্ড থেকে রোববার দুপুর থেকে এই পণ্য ত্রিপুরার আগরতলা যায়।
জানাগেছে, শনিবার সন্ধ্যায় ভারতীয় আটটি ট্রাক বন্দর ইয়ার্ডে আসে। রাতেই ট্রাকগুলোতে মালামাল বোঝাই করা হয়।
গত ২৯ সেপ্টেম্বর ভারতীয় ১৫টি ট্রাকে ১৫০ টন গ্যালভানাইজ স্টিল সিট ত্রিপুরায় যাওয়ার মাধ্যমে পরীক্ষামূলক ট্রানজিট শুরম্ন হয়। পুজার বন্ধের কারণে আটকে পড়া পণ্যগুলোর মধ্যে শনিবার ৫৬ টন পণ্য যায়। গতকাল রোববার মিলিয়ে তিন বারে মোট ২৯৯ টন পণ্য ভারতে গেছে।
এই পণ্যগুলো ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে নৌপথে বাংলাদেশের আগুগঞ্জ নৌবন্দরে আনা হয়। সেখান থেকে সড়ক পথে আসে আখাউড়া স্থল বন্দরে। তিন বারে মোট ২৯৯ টন পণ্য ভারতে গেছে।
আখাউড়া স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের সুপারিনটেনডেন্ট মো. হামিদুর রহমান হামিদ বলেন, মালামাল বহনকারী বাংলাদেশী ও ভারতীয় প্রতিটি ট্রাক বন্দরে প্রবেশ বাবদ ফি ৮৪টাকা ৯৬ পয়সা, অবস্থান ফি ১১০ টাকা ৪৫ পয়সা, প্রতিদিন ইয়ার্ডে পণ্য রাখার জন্য টনপ্রতি ৮টাকা ৪৯ পয়সা ফি ও চার্জ আদায় করা হচ্ছে।
আখাউড়া স্থলবন্দর কাষ্টমস কর্মকর্তা আবুল বাশার চৌধুরী বলেন, ট্রানজিটের মালামাল যাচ্ছে বিনা শুল্কে। বন্দর কর্তৃপক্ষের চার্জ শুল্ক নয়। এটা বন্দরের সুবিধা গ্রহণের ফি।

Check Also

করোনাযুদ্ধে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিমকে বুড়িচংয়ে সমাহিত

বুড়িচং প্রতিনিধিঃ করোনাযুদ্ধে পুলিশে প্রথম জীবন উৎসর্গকারী কনস্টেবল জসিম উদ্দিনকে (৩৯) কুমিল্লায় সমাহিত করা হয়েছে। ...

Leave a Reply