পরীক্ষামূলক ট্রানজিটের প্রথম জাহাজের পন্য খালাস সম্পন্ন :ভারতীয় ২২‘শ টন পন্য নিয়ে ৪টি জাহাজ এখন আশুগঞ্জে

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ-

পরীক্ষামূলক ট্রানজিটের প্রায় দেড় হাজার টন ভারতীয় স্টীল ও আইরন জাতিয় পন্য নিয়ে আরো ২টি জাহাজ গতকাল সোমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ নৌবন্দরে পৌছেছে।এই নিয়ে আশুগঞ্জ নৌবন্দরে ভারতীয় পন্যবাহি জাহাজের সংখ্যা দাড়াল ৪এ।এদিকে টানা ৩দিন বন্ধ থাকার পর সোমবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে আবার পন্য খালাস।ইতোমধ্যে ট্রানজিটের প্রথম চালানের জাহাজ এমভি হুমি ভাভার বাকী ১৪৫টন পন্য খালাস সম্পন্ন করে বাংলদেশেী ট্রাকে সন্ধায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে আখাউড়া স্থলবন্দরে।পূজার বন্ধের পর এসব পন্য আখাউড়া স্থল বন্দর থেকে ভারতীয় ট্রাকে ট্রান্সশিপমেন্ট করে নিয়ে যাওয়া হবে ত্রিপুরা রাজ্যের আগরতলায়।

বন্দর কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানাযায়,প্রায় ৯‘শ টন গ্যালভানাইজিং স্টিল শিট নিয়ে এমভি গালফ-৪ গতকাল বিকালে এবং ৬২১টন আইরনের সিট নিয়ে এমভি নিলকন্ঠ গত রবিবার রাতে আশুগঞ্জ নৌবন্দরে পোছে।এর আগে ট্রানজিটের প্রথম চালানের ৩০৫টন পন্য নিয়ে ভারতীয় জাহাজ এমভি হুমি ভাভা গত পহেলা †m‡Þ¤^i এবং সাড়ে ৩‘শ টন সিমেন্ট কারখানার কেমিক্যাল নিয়ে ভারতীয় জাহাজ লাল বাহাদুর শাস্ত্রি গত ১ অক্টোবর আশুগঞ্জ বন্দরে পৌছে। এমভি হুমি ভাভা জাহাজের পন্য খালাস গতকাল সোমবার বিকালে শেষ হলেও পন্য খালাসের অপেক্ষায় আরো ৩টি জাহাজ।দূর্গাপূজার বন্ধের পর আগামী ৮ অক্টোবর থেকে বাকী ২টি জাহাজের পন্য খালাস শুরু হতে পারে। ভারতীয় অপর পন্যবাহি জাহাজ লাল বাহাদুর শাস্ত্রি সিলেটের জকিগঞ্জের করিমগঞ্জ দিয়ে আসাম রাজ্যে যাওয়ার কথা রয়েছে।পরীক্ষামূলক চালনের এই ৪টি জাহাজের পন্য বাংলাদেশের ভূখন্ড ব্যবহার করে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে নেয়ার ক্ষেত্রে কোন প্রকার শুল্ক বা চার্জ নেয়া হচ্ছে না বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানায়।তবে প্রতিটি জাহাজ থেকে ল্যান্ডিং এন্ড শিপিং চার্জ বাবদ এবং অবস্থান ফি নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বিআইডব্লিটিএ কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে বিআইডব্লিটিএ স্থানীয় অফিসের পরিবহন পরিদর্শক মোঃ শাহ আলম জানান ভারতীয় পন্যবাহি ৩টি জাহাজের মধ্যে ২টি জাহাজ তাদের ল্যান্ডিং এন্ড শিপিং চার্জ বাবদ প্রতি টনে ৩০টাকা হারে পরিশোধ করেছে। জাহাজগুলো অবস্থানের সময় হিসাব করে অবস্থান ফি আদায় করা হবে।তবে লাল বাহাদুর শাস্ত্রি পন্য সিলেটের জকিগঞ্জের করিমগঞ্জ দিয়ে খালাস হওয়ার কারনে এখানে কোন নির্দেশনা আসেনি।

জেলা রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ আবুল হোসাইন জাতীয় রাজস্ব বোর্ড থেকে ট্রানজিটের পরীক্ষামূলক চালানের ভারতীয় পন্যবাহি ৩টি জাহাজের কাগজপত্র পাওয়ার কথা ¯^xKvi করে বলেন জবাংলাদেশের ভূখন্ড ব্যবহার করার জন্য এসব পন্য থেকে কোন শুল্ক নেয়া হবে না। পালাটানা বিদ্যুত কেন্দ্রের মালামাল পরিবহনের চুক্তির আওতায় ট্রানজিটের পরীক্ষামূলক এই চালানের পন্য পরিবহনের কারণে কোন মাশুল নেয়া হচ্ছে না।তবে শুধু মাত্র এমভি নিলকন্ঠ জাহাজের ক্ষেত্রে জাতীয় রাজ্‌স্ব বোডের গত ২৫ আগষ্টের আদেশ মোতাবেক শুল্কের সমপরিমান অর্থের ব্যাংক গ্যারান্টি ও বিল অফ এন্ট্রি নেয়া হচ্ছে।

এ ব্যাপারে কার্গো ভ্যাসেল অনার্স এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নাজমুল হোসাইন হামদু জানান পরীক্ষামূলক ট্রানজিটের নামে এই পর্যন্ত ভারতীয় পন্যবাহি যে ৪টি জাহাজ এসেছে তার মধ্যে ২টি ভারতীয় ও ২টি বাংলদেশী।যেখানে কোন শুল্ক দিচ্ছে না সেখানে এসব পন্য পরিবহনে বাংলাদেশী জাহাজ ব্যবহার না করলে ট্রানজিট দিয়ে এদেশের ব্যবসায়ীদের তো কোন লাভ হবে না।তিনি এ ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা করে পন্য পরিবহনে অনুুমতি দেয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবী জানান।শহর শিল্প ও বণিক সমিতির পরিচালক মোঃ আলমগীর কবির জানান ট্রানজিট চুক্তি হয়নি অথচ কিভাবে ভারতীয় পন্য বাহি জাহাজ এদেশে আসছে তা আমরা ব্যবসায়ীদের বোধগম্য হচ্ছে না।পরীক্ষামুলক ট্রানজিটের নামে বাংলাদেশের ভূখন্ড ব্যবহার করে হাজার হাজার টন পন্য শুল্ক ছাড়া কি ভাবে নিয়ে যাচ্ছে বিষয়টি পরিস্কার করার জন্য দাবী জানিয়ে বলেন আগে বন্দরের অবকাঠামো উন্ন্‌য়ন করা হউক।

Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply