মনোহরগঞ্জে অবৈধ জুয়েলারি ব্যবসা : ক্রেতারা প্রতারিত

মনোহরগঞ্জ সংবাদদাতা :
সোনার দাম অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্বিতে উপজেলা সদর সহ প্রত্যন্ত অঞ্চলের বিভিন্ন হাটবাজারের একদিকে যেমন গড়ে উঠেছে অবৈধ লাইসেন্স বিহীন শত শত জুয়েলারি দোকান,অন্যদিকে সোনায় ভেজাল মিশ্রণে ক্রেতারা হচ্ছেন প্রতারিত। এদিকে সোনা-রূপা গলানোর কাজে যত্রতত্র নাইট্রিক এসিড ব্যবহারের ফলে আশ পাশের পরিবেশ দূষিত হয়ে উঠলেও প্রশাসনের নজর দারি না থাকায় অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

উপজেলার বেশিরভাগ জুয়েলারি দোকানের নেই কোন বৈধ লাইসেন্স।আবার কেউ কেউ বিনা অনুমতিতে নির্বিঘেœ চালাচ্ছেন বন্ধকী ও সুদের ব্যবসা। সোনার দাম আকাশ চুম্বী হওয়ায় অনেকে সোনার বিক্রির পরিবর্তে দোকানীদের কাছে বন্ধক রাখছেন। বিনিময়ে দোকান মালিকরা ইচ্ছামত মোটা অংকের সুদ হাতিয়ে নিচ্ছেন।

সোনা-রূপা গলিয়ে রকমারি গহনা তৈরি করার জন্য এসিডের ধোঁয়া যাতে শূন্যে উড়ে যায় এজন্য কক্ষের উপর প্রযুক্তি মতে উচু চিমনি থাকার কথা। কিন্তু অল্প কিছু দোকানে তা দেখা গেলেও বেশির ভাগ দোকানেই তা নেই। এসিড লাইসেন্স আইন ২০০২ এর বিধিমোতাবেক খোলামেলা এসিড ব্যবহার আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ এ অস্ব¯িক্সকর পরিবেশ এড়ানোর জন্য অনেকের ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ রাখতে হয়।

এদিকে উপজেলার প্রায় সর্বত্র সোনার দোকানে ভেজাল মিশ্রিত স্বর্ণালংকার বিক্রি ও ওজনে কারচুপি করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।এ ব্যাপারে রেডিমেট দোকান গুলোই এগিয়ে। বিয়ে, বৌভাত, জম্ম দিন, খতনাসহ বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান উপলক্ষে ক্রেতারা এ সব দোকান থেকে চড়া দামে ¯¦র্ণ ক্রয় করলেও এতে ভেজাল মিশ্রিত থাকে এবং ব্যবসায়িরা এ সকল মালের ক্যাশ মেমো দেননা বলে ক্রেতারা জানান।




Check Also

লাকসাম-মনোহরগঞ্জের বিএনপি’র সাবেক এমপি আলমগীরের জাতীয় পার্টিতে যোগদান

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা-১০ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) বিএনপি’র সাবেক এমপি এটিএম আলমগীর জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেছেন। সোমবার জাতীয় ...

Leave a Reply