মুরাদনগরে স্বেচ্ছ সেবক লীগের পাল্টা পাল্টি সমাবেশ, আবারো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা

মোঃ শরিফুল আলম চৌধুরী, মুরাদনগর, কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ

একুশ আগষ্ট গ্রেনেড হামলাকারী সহ ৭১ সালের মানবতা বিরোধীদের ফাঁসির দাবিতে মুরাদনগর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিবাদ সমাবেশকে কেন্দ্র করে একই সমাবেশ স্থলে পাল্টা সমাবেশ সহ কথিত রফিকুল ইসলাম ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলা আহবান করেছে, স্বেচ্ছা সেবক লীগের আরেক গ্র“প ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুনের সমর্থকেরা। পাল্টাপাল্টি দুই সমাবেশকে কেন্দ্র করে ফের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল।

জানাগেছে সম্প্রতি একুশে আগষ্ট গ্রেনেড হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী স্থানীয় সাংসদ শাহ মোফাজ্জল হোসেন কায়কোবাদ সহ সমস্ত অপরাধীদের ফাঁসির দাবিতে আগামীকাল ( শুক্র বার) বিকেল ৪ টায় উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগ ও উপজেলা আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমিটির যৌথ উদ্যোগে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলারন দারোরা ইউনিয়নের কাজিয়াতল ( উঃ) সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে সমাবেশের আহবান করেন । তারা এ দিকে ওই সমাবেশকে কেন্দ্র করে এফ বি সি সি আই এর সাবেক সভাপতি ইউসুফ আবদুল্লাহ হারুনকে প্রধান অতিথি করে ওই একই দিন একই সময়ে পাল্টা সমাবেশ সহ কথিত রফিকুল ইসলাম, ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল খেলার আয়েজনের ঘোষনা দেন। উভয় পক্ষের পাল্টা পাল্টি সমাবেশ ডাকার ফলে বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন। দারোরা ইউনিয়নের দেড় লাখ সাধারন জনতা। ইতি মধ্যে সমাবেশ সফল করার জন্য উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগ ও আমার মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমিটি সম্মিলিত হয়ে বুধবার হতে দারোরা ইউনিয়নে ব্যাপক শোডাউন সহ মিছিল অব্যহত রেখেছে। পিছিয়ে নেই বিপক্ষ গ্র“প ও । তারাও আগামী শুক্র বারের সমাবেশ ও ফুটবল খেলাকে সফল করতে মিছিল করে সভা স্থলে ওই দিন দুপুরে ১৯টি ককটেলের বিস্ফোরন ঘটায়। ককটেল বিস্ফোরন ঘটালে আশে পাশের এলাকা ধোয়ার আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে। এ সময় বিকট শব্দে ভয়ে সভা স্থলের এলাকার লোকজন দিগদ্বিক ছোটা ছুটি করে। কাজিয়াতল ( উঃ) প্রাথমিক বিদ্যালয়মাঠের পাশের বাসিন্দা জনী রহমান বলেন, ককটেল বিস্ফোরন ও লাঠি সোটা নিয়ে মিছিল করায় আমরা আতঙ্কের মধ্যে রয়েছি। দারোরা ইউপির ৯নং ওয়ার্ড সদস্য হাবিবুর রহমান বলেন, ইউসুফ আবদুল্লাহ হারনের সমর্থকেরা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সমাবেশ বানচাল সহ সাধারন জনতাকে আতঙ্কের মধ্যে রাখতেই পাল্টা সমাবেশ ও ককটেল বিস্ফোরন করেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব নাজমা বেগম বলেন, আমি মিটিংয়ে আছি পরে বিস্তারিত বলতে পারব। মুরাদনগর থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন আমি ঐ এলাকায় একবার পুলিশ পাঠিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।




Check Also

দেবিদ্বারের সাবেক চেয়ারম্যান করোনা আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় মৃত্যু: কঠোর নিরাপত্তায় গ্রামের বাড়িতে লাশ দাফন

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার ভাণী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান (৫৫) করোনায় আক্রান্ত ...

Leave a Reply