নাঙ্গলকোটে লাশ দাফনের ৪বছর পর উত্তোলন

নিউজ ডেস্ক :
নাঙ্গলকোটে দাফনের সাড়ে ৪ বছর পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ রেহান উদ্দিনের উপস্থিতিতে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ লাশটি উত্তোলন করেন।

জানা যায়, উপজেলার করের ভোমরা গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে রিপন মিয়া (৩০) বিগত ২০০৭ সালের ২০ এপ্রিল বাড়ীতে মারা যায়। মারা যাবার পর সামাজিক ভাবে তার লাশ দাফন করা হয়। কিন্তু চলতি বছরের ১৪জুলাই রিপন মিয়ার ভাই বাচ্চু মিয়া তার ভাই রিপন মিয়াকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ এনে কুমিল্লার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলায় রিপনের বিধবা স্ত্রী হাসিনা বেগম, দ্বিতীয় স্বামী ফজলুল হক ও ভাই সেলিমকে বিবাদী করা হয়। মামলা দায়েরের পর বিজ্ঞ আদালত লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তে পাঠানোর নির্দেশ দিলে গতকাল সোমবার দাফনের প্রায় সাড়ে ৪ বছর পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তে পাঠানো হয়।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply