ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ায় সুদের ৫শ’ টাকার জন্য কিশোরী খুন : চাচা গুরুতর আহত

আরিফুল ইসলাম সুমন, সরাইল ॥

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার সুতিয়ারা গ্রামে সুদের ৫শ’ টাকার জন্য ছুরিকাঘাতে নিপা বেগম (১৪) নামে এক কিশোরী গতকাল শুক্রবার ভোররাতে চিকিৎসারত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। চুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয় চাচা এরশাদ আলী (৩৫)। ঘটনাটি ঘটেছে গত বৃহস্পতিবার রাতে।

গ্রামবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, ৫ মাস আগে (গত বৈশাখ মাসে ) সুতিয়ারা গ্রামের আবু তাহের মিয়ার কাছ থেকে সুদে ১০ হাজার টাকা ধার নেন প্রতিবেশী জহিরুল ইসলাম। কয়েক দিন আগে জহিরুল ইসলাম আসল টাকা পরিশোধ করে দিলেও সুদের পাঁচশত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে আবু তাহের মিয়ার ছেলে এরশাদ আলী জহিরুল ইসলামের কাছে পাঁচ শত টাকা চাইতে গেলে উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে জহিরুল ইসলামের ছোট ভাই শিরো মিয়া প্রতিপক্ষ এরশাদ আলীকে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাত করতে থাকে। এসময় এরশাদ আলীর বড় ভাই সিরাজুল ইসলামের কিশোরী মেয়ে নিপা চাচাকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে তাকেও পেটে উপর্যপুরি ছুকিাঘাত করে। এতে দু’জনই আহত হয়ে মাঠিতে লুটিয়ে পড়ে। পরিবারের লোকজন আহতদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা সদর হাসপাতালে এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে গতকাল শুক্রবার ভোর রাতে নিপা বেগম মারা যান। আবু তাহেরের মেয়ে জরিনা বেগম জানান তার ভাই এরশাদ আলীর অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনার পর থেকে জহিরুল ইসলাম ও তার ছোট ভাই শিরো মিয়া পলাতক রয়েছে।

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুর রব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গতকাল শুক্রবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিহত কিশোরীর ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।





Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply