ব্রাহ্মন পাড়ায় স্ত্রীর হাতে স্বামী দ্বগ্ধ

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী,কুমিল্লাঃ

কুমিল্লার ‏‏ব্রাহ্মন পাড়ায় স্ত্রীর হাতে প্রত্যন্ত গ্রাম চান্দলায় গত ৭সেপ্টেম্ব বুধবার স্ত্রীর নিক্ষিপ্ত গরম পানিতে স্বামী মোঃ ফিরোজ মিয়া (৩৮) এর সমস্ত শরীর ঝলসে গেছে। পরে তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ (কুমেক) হাসপাতলে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়।

ফিরোজ মিয়ার পরিবার সূত্র জানায় জেলার ব্রাক্ষানপাড়া উপজেলার চান্দলা গ্রামের হামিদ আলীর পুত্র ফিরোজ মিয়া পেশায় একজন নরসুন্দর,ব্যক্তি জীবনে তিনি দু’বিয়ে করেছেন।এনিয়ে পরিবারে বিরোধে ছিল তার নিত্যসঙ্গী। গত ৭ই সেপ্টেম্বর বুধবার পারিবারিক বিষয় নিয়ে বড় স্ত্রী রহিমা খাতুনের (৩৫) সাথে ছোট বউ রিনা আক্তারের বিরোধ বাধে। এ সময় ফিরোজ মিয়া ছোট স্ত্রী’র পক্ষ নিলে রহিমা খাতুন উত্তপ্ত পানির সাথে সাবান মিশিয়ে তার দেহে ছুড়ে মারে,এতে ফিরোজ মিয়ার সমস্ত দেহ ঝলসে যায়। পরে প্রথমে ব্রাক্ষনপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত ফিরোজ মিয়া কুমেক হাসপাতালে মুমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply