দেবিদ্বারে শশুর বাড়ি লোকদের হাতে গৃহবধু খুন

সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী,কুমিল্লাঃ
কুমিল্লার দেবিদ্বারের বৈসের কোট গ্রামে শ্বশুর বাড়ির লোকজন নির্যাতন চালিয়ে রিনা রানী দাস (২৪) নামের ১ সন্তানের জননীকে মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেখে শ্বশুর বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়। গত ৭ সেপ্টেম্বর রাতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জেলার দেবিদ্বার উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের বৈসের কোট গ্রামের প্রবাসী সুভাষ চন্দ্র দাস প্রায় ৫ বছর পূর্বে বিয়ে করে নাঙ্গলকোট উপজেলার বাঙ্গড্ডা গ্রামের রিনা রানী দাসকে। নিহতের চাচাতো ভাই মানিক জানান, বিয়ের ৬ মাস পরে ৬০ হাজার টাকা যৌতুক নিয়ে নিহতের স্বামী প্রবাসে চলে যায়। ইত্যবসরে রানীর কোল জুড়ে আসে দীপ্তি (৪) নামের এক কন্য বিয়ের পর প্রথম থেকেই নিহতের শ্বশুর বাড়ির লোকজন রানীকে পিতা-মাতার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। গত ৭ সেপ্টেম্বর রানীর শ্বশুর বাড়ির লোকজন মোবাইল ফোনে জানায় রানী অসুস্থ। খবর পেয়ে রানীর বাবা সুধীর চন্দ্র সহ পরিবারের লোকজন রাতে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে আসেন। রাত সাড়ে ৯ টায় চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ সময় শ্বশুর বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়। এরপর নিহতের পরিবারের একাধীকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্ঠা করে ব্যর্থ হয়। নিহতের পরিবারের অভিযোগ নির্যাতন শেষে মুখে বিষ ঢেলে রানীকে হত্যা করা হয়। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়।

Check Also

নিউইয়র্কের চিকিৎসক ফেরদৌস খন্দকারে দেওয়া খাদ্য পাচ্ছে দেবিদ্বারের ১ হাজার পরিবার

দেবিদ্বার প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে লকডাউনের কারনে কর্ম হারিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছে দেশের হাজার হাজার ...

Leave a Reply