বাংলাদেশ সিংগাপুর হবে বলে যারা বলেছিল, তারা আজ বোল পাল্টাচ্ছে -জেদ্দায় বেগম খালেদা জিয়া

মুহাম্মদ নাছের চৌধুরী, মক্কা সৌদি আরব  :

জেদ্দায় স্থানীয় বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখছেন বেগম খালেদা জিয়া
সৌদি আরব বি,এন,পির পশ্চিম অঞ্চলীয় কেন্দ্রীয় কমিটির বি,এন,পি কমিটির ইফতার উদ্দোগে. গতকাল ২৫.০৮.২০১১ ইং তারিখে জেদ্দাস্থ গোল্ডেন ইন হোটেলে এক ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়.উক্ত অনুষ্ঠান জনাব হাফেজ আবুল হোসেনের কুরআন তেলায়াতের মাধ্যমে শুরূ হয়. সভায় জনাব মনিরুজ্জামান তপনের উপস্থাপনায় উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয়তাবাদি দল বি,এন,পি সৌদি আরব পশ্চিম অঞ্চল কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জনাব আহাম্মদ আলী মুকিব।

প্রধান অতিথির ভাষনে বেগম জিয়া বলেন আজ হিংসা, বিদ্বেষ, জিঘাংসা আর স্বার্থপরতার পট পরিবর্তিত করে দেশে শান্তি স্থিতি নিরাপত্তা আনতে হবে । আমরা স্বাধীনতা এনেছি. আর ওরা স্বাধীনতার সময় কলকাতার হোটেলে অবস্থান করত. তাই তারা দেশের সম্মান ও গৌরব বুঝতে পারে না. অপমানজনক চুক্তি করে নতজানু চুক্তি করে পার পেতে চায়।

দেশকে অপমান করতে তাদের নেত্রী ভারত থেকে সময় সময় মুখ্যমন্ত্রী উপাধী পায় এটা পেয়ে মুচকি হেসে সম্মতি জানায়. ভারত ও হাসিনা এক সুরে বলছিল চুক্তির কারনে দিব দিব ..সব দিব এখন দেখা যাচ্ছে দিল্লী আমাদেরকে কিছুই দেবার যোগ্যতা রাখে না। রাস্তা ঘাটের টাকা লুটপাট করে দেশকে পংগু করা হয়েছে । এজন্য দেশেল স্বার্থে উপায় না পেয়ে তারা দিনের পর দিন ধর্মঘট ডাকছে।

সারা দেশে স্কুল আর কলেজ গামী মেয়েরা আজ আওয়ামী সন্ত্রাসীদের কাছে ইজ্জত হারাচ্ছে. দেশের সবাইকে নির্যাতিন করাই তাদের মুল কাজ. শিল্পপতি .ব্যবসায়ী আমলা .আইনজীবী .সাংসদ .আলেম .মাশায়েখ.সাংবাদিক নির্যাতিত .মোট কথা সকল মানুষ আজ নির্যাতিত.দ্রুত সংবিধান পরিবর্তন.

সংবিধান থেকে আল্লাহর নাম মুছে ফেলার প্রতিবাদ করে তিনি বলেন..সরকার কাউকে বিশ্বাস করে না. জনগনকে বিশ্বাস করে না বলেই তাদের আন্দোলনের ফসল কেয়ারটেকার ফরমুলা উঠিয়ে দিয়েছে দেশের উন্নয়নে বিশ্বাস করে না বলেই দেশের রাস্তাঘাটের চরম বেহাল দশা আদালত বিশ্বাস করে না বলেই.আইনকে বার বার চপেটাঘাত করছে.সর্বপরি আল্লাহর নাম বিশ্বাস করে না তারা তাদের নিজদেরকে ও বিশ্বাস করতে পারছে না মোট কথা সরকার দেশের কাউকে বিশ্বাস করতে পারছেনা .

দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব সুরক্ষার জন্য প্রয়োজন ঐকবদ্ধ গনজাগরন গনআন্দোলন. দেশের জনতা এখন বুঝতে পারছে ধর্মনিরপেক্ষতা মানেই ধর্মহীনতা তা আওয়ামী সরকারের সমগ্র কার্যক্রম থেকে প্রমানীত ।

অনুষ্ঠানে অন্যন্য নেতৃবৃন্দ সংবিধানে মহান আল্লাহর প্রতি পুর্ন আস্থা এই ধারাটি বাদ দিয়ে কোন শয়তানের উপর কিংবা শয়তান সুরঞ্জিতের উপর আস্থা রেখে পার পাবেন না.শয়তান পরাজিত হবেই ইনশাল্লাহ. তারা বলেন সরকার রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে বিভিন্ন মামলা দিয়ে দেশপ্রেমিক জাতীয়তাবাদী শক্তিকে পংগু করে দেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব প্রশ্নের সম্মুখীন করছে —.আওয়ামীলীগ জনগনের স্বার্থে কাজ করে না, নিজেদের দলীয় লোকদের দূর্নীতির মাধ্যমে বড়লোক বানানোই তাদের মূল কাজ।দেশে আওয়ামী বাকশালীদের কাছে জনগন জিম্মি হয়ে গেছে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মাঝে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন .বরিশাল সিটি মেয়র মুজিবুর সায়োরার

মক্কা বি,এন,পির সভাপতি মুহাম্মদ রফিক খান সি সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী মুক্তি আন্দোলনের মধ্যপ্রাচ্যের সভাপতি সি.আই. পি ফোরামের সভাপতি কেফায়াতুল্লাহ চৌধুরী ..জনাব ইসমাঈল হোসেন বেংগল । যুবদল সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন যুবদল নেতা জনাব এনামুল হক ইয়ুথ ফোরামের সহ সভাপতি গিয়াসউদ্দিন চৌধুরী .মক্কাস্থ যুবদল সভাপতি ময়নুল ইসলাম .সেক্রেটারী জনাব আতিকুর রহমান কিরন . সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী মুক্তি আন্দোলনের মক্কা শাখার সভাপতি জনাব নুরুল আবসারসহ মক্কাস্থ স্বাধীনতা ফোরামের সিনিয়র সহ সভাপতি জনাব মুহাম্মদ আলমগীর . প্রমুখ





Check Also

রিয়াদে জ্যাবের ‘অমর একুশে’ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

ষ্টাফ রির্পোটার :– “অমর একুশের চেতনায় গন মানুষের মনে জেগে উঠুক উজ্জলতা উৎকৃষ্টতা” শীর্ষক আলোচনা ...

Leave a Reply