সেতুর নিচে বিকল্প সড়ক উজানের পানি আটকে ৪ গ্রাম ও ফসলি জমি প্লাবিত

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়াঃ-
ত্রিপুরার পালাটানা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভারী যন্ত্রাংশবাহী ট্রেইলার চলাচলের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার স্থলবন্দর সড়কের আব্দুল্লাপুর জাজি সেতুর নিচে তৈরি করা হয় বিকল্প সড়ক। গত কয়েক দিনের টানা বৃস্টি আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানি ওই বিকল্প সড়কের কারণে বাঁধাপ্রাপ্ত হয়ে উপজেলার ৪টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার দুপুর পর্যন্ত ওই পানি বেড়েছে। যা এখনো আটকে আছে।

এই গ্রামগুলোর শতাধিক মানুষ হয়ে পড়েছেন পানিবন্দি। তিনটি পরিবার ঘর ছেড়ে আশ্রয় নিয়েছে আব্দুল্লাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। আকস্মিকভাবে পানি বেড়ে যাওয়ায় তলিয়ে গেছে প্রায় ২০০ একর রোপা আমন ফসলের জমি। ওই জমিগুলোতে ধানের চারা লাগানো আছে। ভেসে গেছে ১৫টি পুকুরের প্রায় ৩০ লাখ টাকার মাছ।

আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের তথ্যমতে ইউনিয়নের আব্দুল্লাপুর, কালিকাপুর, বীরচন্দ্রপুর ও বঙ্গেরচর গ্রাম চারটি প্লাবিত হয়েছে। প্রায় শতাধিক মানুষ পানি বন্দি হয়ে আছেন। এর মধ্যে ১০টি পরিবারের বসত ঘরে পানি উঠেছে। তিনটি পরিবার আশ্রয় নিয়ে গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

আখাউড়া স্থলবন্দরের ব্যবসায়ী ও স্থানীয় ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুর রহিম মিয়া বলেন, ঘরবাড়ি, ফসলি জমিসহ স্থলবন্দরের প্রায় ৮টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও পানি ঢুকেছে। তাছাড়া নারায়ণপুর সেতুর নিচের বিকল্প সড়কের পানি বাঁধাপ্রাপ্ত হয়ে সেখানকার কয়েক একর জমি পানির নিচে তলিয়ে আছে।

আব্দুল্লাপুর গ্রামের জোসনা বেগম বলেন, রাতে সেহরী খাওয়ার সময় হঠাৎ ঘরে পানি ঢুকে। তখনও বুঝতে পারিনি এভাবে সব তলিয়ে যাবে। ঘরের কোন কিছু আনতে পারেনি। আশ্রয় নিতে হয়েছে স্কুলের শ্রেণী কক্ষে।

একই গ্রামের মো. এরশাদ মিয়া (৩০) বলেন, আমার একটি পুকুরের ৩ লাখ টাকার মাছ ভেসে গেছে। তার মতো এমন আরো কয়েকজন মাছ চাষি মারাত্মকভাবে ড়্গতিগ্রস্থ হয়েছেন।

আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহ নোয়াজ খান বলেন, উজানের পানি যে পথ দিয়ে নামে সেখানেই বিকল্প সড়ক তৈরী করে প্রতিবন্ধকতা সৃস্টি করা হয়েছে। ওই সড়ক উপচে পানি যাচ্ছে। বিকল্প এই সড়কটি দ্রুত কেটে দেওয়ার জন্য সড়ক ও জনপথের প্রকৌশলীকে অনুরোধ করেছি।

যোগাযোগ করা হলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিকল্প ওই সড়ক তৈরী করেছে ভারতীয় ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান আসাম বেঙ্গল কেরিয়ার ইন্ডিয়া লিমিটেড (এবিসি)। ওই প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকৌশলীকে বলা হয়েছে বিকল্প সড়কটি কেটে দিয়ে পানির স্বাভাবিক গতির বাঁধা তুলে দিতে।





Check Also

আশুগঞ্জে সাজাপ্রাপ্ত আসামির মরদেহ উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে মো. হারুন মিয়া (৪৫) নামে দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত এক আসামির ...

Leave a Reply