চান্দিনায় দিন দিন বাড়ছে খানা-খন্দ; ময়লা-আবর্জনায় পথচারীরা অতিষ্ঠ

মাসুমুর রহমান মাসুদ, স্টাফ রিপোর্টার :

পৌর কর্তৃপক্ষের গাফিলতি
চান্দিনা পৌরসভায় দিন দিন খানা-খন্দ বাড়ছে। ফুটপাতগুলোতে ময়লা-আবর্জনার স্তুপ থাকায় পথচারীরা অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। আবর্জনার দুঃর্গন্ধে ব্যবসায়ীরাও অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন। ড্রেন থেকে ময়লা-আবর্জনা তুলে রাখার পর পৌর কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে এগুলোকে অপসারণ করা হচ্ছে না। বৃষ্টির পানিতে পুনরায় ড্রেনে পতিত হচ্ছে উত্তোলনকৃত ময়লা-আবর্জনা। ফলে রাস্তা ও ফুটপাত খানা-খন্দের কারণে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ছে। ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, গত ৩০ জুলাই ড্রেন থেকে ময়লা-আবর্জনা তুলে রাখার পর দুই সপ্তাহ অতিবাহিত হলেও অদ্যাবধি সেগুলো সরানো হয় নি। এতে তাদের চলাচলসহ বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে। পৌর কর্তৃপক্ষের এমন উদাসিনতা ও গাফিলতির বিষয়ে ব্যবসায়ীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

এদিকে রাস্তার পার্শ্বে পর্যাপ্ত ড্রেন এবং ডাস্টবিন না থাকায় ব্যবসায়ীরা ময়লা আবর্জনা রাস্তায় ফেলতে বাধ্য হচ্ছেন। অপরিকল্পিত ড্রেইনেজ ব্যবস্থার কারণে এ সমস্যা আরও বেশি প্রকট হয়ে দাড়িয়েছে। সামান্য বৃষ্টি হলেই চান্দিনা ষ্টেশন রোড, রামমোহন রোড, পেঁয়াজ বাজার, গরু বাজার, মাছ বাজার, সব্জি বাজার এলাকা পানিতে তলিয়ে আবর্জনা ভেসে উঠে। খানা-খন্দে ভরে গিয়ে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ে। স্কুলগামী ছাত্র-ছাত্রীদের আসা-যাওয়া চরমভাবে বিঘিœত হয়।

এ ব্যপারে চান্দিনা পৌর মেয়র শাহ্ মো. আলমগীর খান সোমবার (১৫ আগস্ট) এ প্রতিবেদককে জানান, কোন অংশে এরকম হয়েছে আমার জানানেই। পৌরসভা থেকে কিছু অংশের ময়লা তোলা হয়েছে, বৃষ্টির কারণে বেলচা দিয়ে তোলা যাচ্ছে না। তবে এতদিন হয়নি। ড্রেনগুলোর সংস্কারকাজ করা হবে। আরও আগে জানালে ভাল হতো। আজকে বন্ধের দিন, ব্যবস্থা নেয়া হবে।





Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply