তিতাসে রূপচাঁদা পরিচয়ে বিক্রি হচ্ছে পিরানহা :গ্রেফতার ১

নাজমুল করিম ফারুক, তিতাস
তিতাসে প্রশাসনের নজরদারির অভাবে বিভিন্ন হাটবাজারে নিষিদ্ধ ঘোষিত পিরানহা মাছ সাগরের রূপচাঁদা পরিচয়ে বিক্রি হচ্ছে নিষিদ্ধ ঘোষিত পিরানহা মাছ। এই মাছ বিক্রির দায়ে গ্রেফাতার করা হয়েছে ১ জন এবং মোবাইল কোর্টের আওতায় জরিমানা করা হয়েছে ১ হাজার টাকা।

উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে গিয়ে দেখা গেছে, এক শ্রেণীর অসাধু মাছ ব্যবসায়ী নিষিদ্ধ ঘোষিত মানুষখেকো পিরানহা মাছ সাগরের রূপচাঁদা বলে বিক্রি করছে। আর গ্রামের সহজ-সরল মানুষ এ মাছ কিনে প্রতারিত হচ্ছেন। শুধু তাই নয়, এখন উপজেলার কিছু পুকুরে এ মাছের চাষ হচ্ছে বলেও খবর পাওয়া গেছে। কিন্তু মৎস্য চাষী বা গ্রামের মানুষ বিষাক্ত রাক্ষুসী এ মাছের পরিচয় জানে না।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, আফ্রিকায় বিষাক্ত এ পিরানহা মাছের প্রথম উৎপাদন হয়। মাছটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানা গেছে, এটি মানুষের খাবার উপযোগী নয়। এটি একটি রাক্ষুসী মাছ এবং বিষাক্ত। এই মাছ ছোট ছোট মাছ খেয়ে বেঁচে থাকে, এমনকি মানুষকেও নিমিষেই খেয়ে ফেলার ইতিহাস আছে। নিষিদ্ধ ঘোষিত পিরানহা মাছ যাতে বাজারে বিক্রি করতে না পারে সে জন্য আমাদের অভিযান চলছে। তিনি আরো জানান, গতকাল পিরানহা মাছসহ কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মাদবপুর গ্রামের শাহ আলমের ছেলে মোঃ মামুন (৩০) কে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে গর্ত করে আটককৃত নিরানহা মাছগুলো মাটিতে পুতে দেয়া হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আঃ রশীদ মোল্লা জানান, পিরানহা মাছ মানুষের জন্য খাওয়া একেবারেই নিষেধ। আর এসব মাছ খেলে শরীরে জটিল রোগ দেখা দিতে পারে। তাই এসব মাছ কেনা এবং খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।





Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply