নাঙ্গলকোটে রমরমা দাদন ব্যবসা

নাঙ্গলকোটের মসজিদের মোয়াজ্জিনের রমরমা দাদন ব্যবসা
স্টাফ রিপোর্টার:
নাঙ্গলকোট পৌরসভাধীন ১নং ওয়ার্ড আতাকরা মধ্যপাড়া জামে মসজিদের মোয়াজ্জিন খোরশেদ আলমের দাদন ব্যবসার খপ্পরে পড়ে এলাকার নিরীহ ব্যবসায়ীসহ জনসাধারণ মারাত্মক ক্ষতি গ্রস্থ হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানাযায় ভয়ংকর সুদী খোরশেদ এর ব্যবসার আড়ালে শতকরা ২০ টাকা হারে, নিরীহ লোকদের কাছ থেকে সুদের টাকা আদায় করে নিচ্ছে। অনুসন্ধানে আরো জানাগেছে সুদীচক্র খোরশেদ আলম রেজি: বিহীন সমিতি গঠন করে স্থানীয়দের ব্যবসায় কিংবা বিভিন্ন কাজে তাদেরকে ছড়া সুদ ঋণ দিয়ে মোটা অংকের সুদের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। কেউ সুদের টাকা দিতে বিলম্বিত হলে খোরশেদ আলম গ্র“পের নিজস্ব সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা করে সুদের টাকা আদায় করে নিচ্ছেন। তাদের ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলছে না। দিন মজুর থেকে শুরু করে এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তিদের সুদী টাকা দিয়ে কালো টাকার মালিক হয়ে গেলেন। প্রশাসনের নাকের ডগায় সুদী খোরশেদ আলম বুক ফুলিয়ে এই ব্যবসা করে যাচ্ছে। গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত করলে আরো অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে পৌর এলাকার সচেতন মহল মনে করেন।

প্রশাসনের হস্তক্ষেপ জরুরী- নাঙ্গলকোটের নাওগোদায় হান্নান-মান্নানের রমরমা দাদন ব্যবসা
নাঙ্গলকোট পৌরসভাধীন ২নং ওয়ার্ড নাওগোদায় হান্নান মীর, মান্নান মাস্টার, ছাত্তার মিয়াজী, মোবারক মজুমদার, সিরাজুল ইসলাম, হারুন, আনামিয়ার দাদন ব্যবসার খপ্পরে পড়ে এলাকার নিরীহ ব্যবসায়ীরা মারাত্মক ক্ষতি গ্রস্থ হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানাযায় ভয়ংকর সুদী চক্রের ঐসব লীডারদের ব্যবসার আড়ালে শতকরা ২০ টাকা হারে, রাত ১টার পর থেকে দ্বিগুন হারে নিরীহ লোকদের কাছ থেকে সুদের টাকা আদায় করে নিচ্ছে। অনুসন্ধানে আরো জানাগেছে সুদীচক্র হান্নান-মান্নান-ছাত্তার-মোবারক-সিরাজ-হারুন-আনামিয়ারা রেজি: বিহীন সমিতি গঠন করে স্থানীয়দের ব্যবসায় কিংবা বিভিন্ন কাজে তাদেরকে ছড়া সুদ ঋণ দিয়ে মোটা অংকের সুদের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। কেউ সুদের টাকা দিতে বিলম্বিত হলে লীডার গ্র“পের নিজস্ব সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা করে সুদের টাকা আদায় করে নিচ্ছেন। তাদের ভয়ে এলাকার কেউ মুখ খুলছে না। দিন মজুর থেকে শুরু করে এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি এই সুদী চক্রে জড়িত থেকে দীর্ঘদিন ধরে কালো টাকার মালিক (বনে যাচ্ছেন) হয়ে গেলেন। প্রশাসনের নাকের ডগায় সুদী চক্ররা বুক ফুলিয়ে এই ব্যবসা করে যাচ্ছে। গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত করলে আরো অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে বলে পৌর এলাকার সচেতন মহল মনে করেন।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply