সদর দক্ষিণে গায়ে আগুন দিয়ে মারা গেলেন ২ সন্তানের জননী

সদর দক্ষিণ, ১৭ জুলাই ২০১১ (কুমিল্লাওয়েব ডট কম) :
সদর দক্ষিণ উপজেলার ভুলুইন ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে ২ কন্যা সন্তনের জননী কেরোসিন গায়ে ঢেলে আগুনে পুড়ে মারা গেছে। রোববার সকালে সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, ভুলুইন ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসী সামছুল আলমের স্ত্রী নাছিমা আক্তার সুমি (৩০) সকালে কেরোসিনের আগুনে পুড়ে মারা যায়। আগুনে তার শরীরের ওপরের অংশ ঝলসে গেছে। সদর দক্ষিণ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ার হোসেন জানান, সকালে নাছিমা আক্তার তার স্বামী সামছুল আলমের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলে। এ সময় তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর পরপরই সুমি এ দুর্ঘটনা ঘটায় বলে সামছুল আলমের পারিবারিক সূত্র দাবি করেছে।

এদিকে নাছিমা আক্তারের অভিভাবকদের অভিযোগ, তাকে শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুনে হত্যা করা হয়েছে। তবে লাশ ময়নাতদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন হবে বলে জানান আনোয়ার হোসেন। পুলিশ সামছুল আলমের বোন সুফিয়া খাতুন ও জা নাসরিন আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় এনেছে। নাছিমার ৬ ও ৩ বছরের দুটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের বয়োবৃদ্ধ শ্বশুর আবদুস ছোবহান পলাতক রয়েছেন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ব্যাপারের সদর দক্ষিণ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply