নাঙ্গলকোটে হাইস্কুল শিক্ষক ও আয়ার পরকীয়া প্রেম জনতার হাতে আটক

জামাল উদ্দিন স্বপন:
কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে গতকাল গভীর রাতে নাঙ্গলকোটের বাইয়ারা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু বক্কর স্কুলের আয়া মাহমুদা বেগমের সাথে অবৈধ মেলা মেশা কালে স্থানীয় লোকজনের হাতে ধরা পড়ে। স্থানীয় সূত্রে জনা যায়, আবু বক্কর দীর্ঘ দিন যাবৎ বিদ্যালয়ের আয়ার সাথে পরকীয়া প্রেমের ডুবেডুবে জল খাচ্ছে। স্বামী প্রবাসে থাকার কারণে অতি সহজেই বক্করের প্রেমে সাড়া দেয়। প্রধান শিক্ষক হওয়ার কারণে দুজনের পরকীয়া প্রেম চলে অতি গোপনে। বাড়ীর আশে পাশের লোকজনের নজরে ঘটনাটি আস্তে আস্তে প্রকাশ পেতে থাকে। ঘটনার দিন রাতে প্রধান শিক্ষক যখন আয়ার বাড়ীতে প্রবেশ করে। তখন গ্রামের লোকজনের নজরে পড়লে আয়ার ঘরের দরজায় দাড়িয়ে আয়াকে ডাকা অবস্থায় প্রধান শিক্ষককে লোকজন হাতে নাতে ধরে পেলে। বাড়ীর আশে পাশের ও গ্রামের লোকজন স্থানীয় গ্রাম পুলিশের সহযোগিতায় জোড্ডা ইউপি বোর্ড অফিসে আটক করে রাখে। পরে ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা ও মাষ্টার বক্করের পক্ষের লোকজন আগামী শনিবার বিদ্যালয়ের অফিসে সুষ্ঠ বিচারের আশ্বাস দিয়ে বক্করকে ছাড়িয়ে আনে। অন্য দিকে আবু বক্কর ঘটনা অস্বীকার করে ঐ গ্রামের ৭জনকে আসামি করে নাঙ্গলকোট থানায় মামলা দায়ের করার খবর পাওয়া গেছে। এর পূর্বেও আবু বক্কর সাবিত্রা উচ্চ বিদ্যালয়, সোন্দাইল উচ্চ বিদ্যালয় সহ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করেন। ঐ সব প্রতিষ্ঠানেও তিনি নারী কেলেংকারী জনিত ঘটনায় মামলা সহ জরিমানা দেওয়ার ঘটনা রয়েছে।

এ ব্যাপারে জোড্ডা ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন- লোকজনের কাছে জেনেছি আবু বক্করকে সোমবার রাত ২টার সময় আয়ার বাড়ী থেকে ধরে এনে বোর্ড অফিসে আটক করে রেখেছে। এছাড়া অন্য কিছু জানি না। ঘটনার সুষ্ঠ বিচার না হওয়া পর্যন্ত স্কুল বন্ধ থাকবে ঘোষনা দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা ক্লাশ বর্জন করছে। বর্তমানে স্কুলটি বন্ধ রয়েছে।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply