আশুগঞ্জ সার কারখানার চালু করার ৮দিন না যেতেই আবারো উৎপাদন বন্ধ :প্রতিদিন সোয়া ২কোটি টাকার ক্ষতি

লিটন চৌধুরী.ব্রাহ্মণবাড়িয়া :
এক টানা ৩ মাস বন্ধ থাকার পর চালু করার ৮দিন না যেতেই আবারো যান্ত্রিক ত্রুটির কারনে বন্ধ হয়ে গেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ সার কারখানা। মঙ্গলবার রাতে কারখানার ইউরিয়া পান্টের স্টীপরের টিউব লিকেজ হয়ে সার উৎপাদন বন্ধ হয়েছে। এদিকে কারখানা বন্ধ থাকায় প্রতিদিন সোয়া ২ কোটি টাকা মূল্যের ১২‘শ টন ইউরিয়া সার উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে।

কারিগরি বিভাগ সূত্রে জানাযায় কারখানার ইউরিয়া পান্টের এইচপি স্টীপারের টিউব লিকেজ হয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টায় উৎপাদন বন্ধ হয়েছে। স্থানীয় প্রকৌশলীরা ত্রুটি চিহ্নিত করে আজ বুধবার সকাল থেকে মেরামত কাজ শুরু করেছে।কারখানার ওভারহোলিং কাজ করতে গত পহেলা এপ্রিল দেড় মাসের জন্য উৎপাদন বন্ধ করা হয়।প্রায় দেড়‘শ কোটি টাকা ব্যায় করে নির্ধারিত সময়ে ১০দিন পর ওভারহোলিং কাজ শেষ করলেও নিম্নমানের যন্ত্রাংশ ব্যবহার করায় ৩ মাসেও উৎপাদনে যেতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।কয়েক দফা চেষ্টা চালিয়ে ৩ মাস ৫দিন পর গত ৫ জুলাই কারখানার ইউরিয়া উৎপাদন চালু করা হয়। ফলে গত অর্থ বছরে ইউরিয়া উৎপাদনে লক্ষ্য মাত্রা অর্জন করা সম্ভব হয়নি।বিসিআইসি থেকে চলতি অর্থ বছরে প্রথমে ৩ লাখ ৮০ হাজার টন ইউরিয়া সার উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করে দেয়া হলেও কারখানা উৎপাদন করেছে ২লাখ ৭২ হাজার টন।এদিকে কারখানায় বৃহৎ একটি ওভারহোলিং কাজ করার পরও আগের চেয়ে ইউরিয়া সার উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব হয়নি। ১৬‘শ টন উৎপাদন ক্ষমতা সম্পন্ন এই কারখানা বর্তমানে ১২‘শ টনের বেশী ইউরিয়া সার উৎপাদন করা সম্ভব হচ্ছে না।প্রায় দেড়‘শ কোটি টাকা ব্যয় করে ওভারহোলিং কাজ করার পর উৎপাদন বৃদ্বি না পাওয়া এবং কারখানা চালু করার ৮দিন না যেতেই আবার বন্ধ হওয়ার জন্য ওভারহোলিং কাজে অনিয়মকেই দায়ী করছে সাধারণ শ্রমিকরা।

এ ব্যাপারে কারখানার মহা ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান ইউরিয়া পান্টে যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য কারখানার উৎপাদন বন্ধ হয়েছে।স্থানীয় প্রকৌশলীরা ত্রুটি মেরামতর কাজ শুরু করছে। দ্রুত উৎপাদনে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে।তবে পূনরায় কারখানা চালু করতে ৬/৭দিন সময় লাগতে পারে। বর্তমানে কারখানা গুদামে প্রায় ৫০ হাজার টন সার মজুদ রয়েছে সুতরাং সংকটের কোন সম্ভ্যবনা নেই ।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply