চৌদ্দগ্রামে পুলিশের অভিযানে ৯ অপরাধী আটক ॥ মালামাল উদ্ধার

জামাল উদ্দিন স্বপন:
কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশ গত তিনদিনে বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে ৫ চোর-ডাকাতসহ ৯ অপরাধীকে আটক করে। এসময় পুলিশ অপরাধীদের থেকে ডাকাতি হওয়া মালামাল ও ফেনসিডিল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

থানা সুত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার পদুয়া এলাকা থেকে গতকাল শনিবার সকালে থানার এএসআই ইকবাল হোসেন দশ বোতল ফেনসিডিলসহ চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার বাহাদিপাড়ার আব্বাস আলীর ছেলে শহিদুল ইসলামকে আটক করে। এছাড়া শুক্রবার রাতে আলকরা এলাকাবাসী সন্দেহজনকভাবে নোয়াখালী সুধারাম থানার পূর্ব মাইছচড়ার আলী আহম্মদের ছেলে নিজাম উদ্দিন, নুর ইসলামের ছেলে ইসমাইল হোসেন ও লক্ষীপুর থানার সাকচর গ্রামের মমিন উল্লার ছেলে শাহিনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ১ টায় উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের পাশাকোট গ্রামের মৃত আলী আকবরের ছেলে শাহ আলমের ঘরে একই গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে এয়াকুব মিয়া, পাশ্ববর্তী ফকিরহাট গ্রামের শফিকুর রহমানের ছেলে মনির হোসেন ও মাষ্টার আবদুল করিমের ছেলে এয়াকুব আলী চুরি করে ঢুকে। চোরচক্র মহিলাদের গলার চেইন টানতে দিলে তারা সজাগ হয়ে চিৎকার শুরু করে। এক পর্যায়ে আশ-পাশের লোকজন গিয়ে ৩ চোরকে আটক করে। শুক্রবার সকালে আটককৃত চোরদের এলাকাবাসী মাথা ন্যাড়া করে গণধোলাই দিয়ে থানায় সোপর্দ করেছে। বিকেলে শাহ আলম বাদী হয়ে ৩ চোরের বিরুদ্ধে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি চুরির মামলা দায়ের করে। এছাড়া পুলিশ শ্রীপুর ইউনিয়নের যশপুরে হাজী আবদুর রশিদের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনায় ২ টি মোবাইল সেট ও নগদ টাকাসহ ২ ডাকাতকে আটক করেছে। ডাকাতরা হচ্ছে- কুমিল্লা সদর দক্ষিণ থানার চন্ডিপুর গ্রামের সৈয়দ আলীর ছেলে শাহ আলম, নারায়নগঞ্জের সিদ্দিরগঞ্জ থানার হিরাজিল গ্রামের আবু বক্কর। আটকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা শেষে জেলে পাঠানো হয়েছে।




Check Also

কুমিল্লায় তিন গৃহহীন নতুন ঘর পেল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ– কুমিল্লা সদর উপজেলায় গ্রামীণ উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে ৪নং আমড়াতলী ইউনিয়নের গৃহহীন নুরজাহান বেগম, ...

Leave a Reply